[X]

মৌসুমি সর্দি কাশি দূর করে ফেলুন আয়ুবের্দিক ৬ উপায়ে

এই রোদ তো এই বৃষ্টি, প্রকৃতির এই খেয়ালি আবহাওয়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় স্বাস্থ্যের। এই সময়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পায়, যার কারণে ঠান্ডা, সর্দি, জ্বর দেখা দেয়। সাধারণত অনেকেই ঠান্ডা জ্বর দূর করার জন্য ওষুধ খেয়ে থাকেন।

কিন্তু এইরকম হুট করে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া স্বাস্থ্যের ক্ষতির কারণ হতে পারে। ওষুধ না খেয়ে নিজেই দূর করতে পারেন মৌসুমি এই ঠান্ডা জ্বর। আসুন তাহলে জেনে নিন ঠান্ডা, জ্বর দূর করার আয়ুবের্দিক কিছু উপায়।

১। আদা, গোলমরিচ এবং লবণ

এক চিমটি লবণ, গোলমরিচ এবং আদা কুচি দিয়ে জ্বাল দিন। ভালভাবে জ্বাল হয়ে আসলে ঠান্ডা করে এটি পান করুন। আদা, গোলমরিচ শরীর গরম করে দেয়। যা পেটের সমস্যা দূর করে ঠান্ডা সর্দি দূর করে দেয়।

২। হলুদ এবং মধুর মিশ্রণ

শুকনো কাশির জন্য হলুদের গুঁড়োর সাথে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে দিনে তিন থেকে চার বার খান। এটি শুকনো কাশির জন্য বেশ কার্যকর। এছাড়া চার কাপ গরম পানিতে এক টেবিল চামচ হলুদের গুঁড়ো দিয়ে কয়েক মিনিট জ্বাল দিন। এর সাথে লেবুর রস অথবা মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। হলুদের অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান ঠান্ডার জীবাণু দূর করতে সাহায্য করে।

৩। রসুন

৪-৫টি রসুনের কোয়া কুচি এক চা চামচ ঘিয়ে ভেজে নিন। কুসুম গরম থাকতে এটি খেয়ে ফেলুন। এটি ঠান্ডা কাশিতে দ্রুত মুক্তি দেবে। এছাড়া এটি বিভিন্ন খাবারে ব্যবহার করতে পারেন। The University of Maryland Medical Center cites এক সমীক্ষায় দেখেছে যে যারা রসুনের সাপ্লিমেনটরি নিয়মিত খেয়ে থাকেন তাদের ঠান্ডাজনিত সমস্যা ৬৩% পর্যন্ত কমে যায়।

৪। তুলসি

১০-১২টি তুলসি পাতা ভাল করে ধুয়ে নিন। এবার এটি পানিতে জ্বাল দিন। ঠান্ডা হয়ে আসলে পান করুন। তুলসির অ্যান্টিফাঙ্গাল, অ্যান্টিইনফ্লামেটরী এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান সর্দি, ঠান্ডা এবং ঠান্ডাজনিত সমস্যা দূর করে দেয়।

৫। গুড়

আয়ুবের্দিক চিকিৎসক Dr. Soumya Bhat ঠাণ্ডা দূর করার জন্য গুড়ের এই পানীয়টি পানের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। পানিতে কয়েক টুকরো গোলমরিচ দিয়ে ২০ মিনিট জ্বাল দিন। এর সাথে জিরা গুড়ো এবং গুড় মিশিয়ে নিন। এছাড়া অর্ধেকটা পেঁয়াজের সাথে কিছু পরিমাণ গুড় মিশিয়ে নিন। এবার এটি খান। এটি ঠান্ডা, কাশি দূর করে দিতে সাহায্য করবে।

৬। মধু

এক চা চামচ মধুর সাথে এক চা চামচ লেবুর রস গরম পানিতে মিশিয়ে নিন। এটি পান করুন। এটি গলা ব্যথা দূর করবে সাথে সাথে সর্দি, ঠান্ডা কাশি দূর করে দেবে।