[X]

সুনীল নারাইনের ব্যাটিং তাণ্ডবে মলিন হয়ে গেলো শোয়েব মালিকের ব্যাটিং ঝড়

সুনীল নারাইনের ব্যাটিং তাণ্ডবের সামনে মলিন হয়ে গেলো শোয়েব মালিকের ব্যাটিং ঝড়। এতে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (সিপিএল) আরো এক জয় তুলে নিলো ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স।

বার্বাডোস ট্রাইড্রেন্টসে হারালো ২ উইকেটে। এতে ৫ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে শাহরুখ খানের মালিকানাধীন দল ত্রিনবাগো। আর চার ম্যাচে দুই জয় ও দুই হারে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে বার্বাডোস। ৬ দলের লীগে তিন ম্যাচের প্রতিটি জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস।

বাংলাদেশের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজকে এবার দলে ভিড়িয়েছে

ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। কিন্তু এখনো এক ম্যাচেও তাকে মাঠে নামানো হয়নি। পাঁচ ম্যাচেই বেঞ্চে বসে মিরাজ। তবে তাকে ছাড়াই দুর্দান্ত খেলছে ত্রিনবাগো। এদিন টস হেরে আগে ব্যাটে গিয়ে ৯ উইকেটে ১৫২ রান সংগ্রহ করে কাইরন পোলার্ডের বার্বাডোস।

চার নম্বরে নেমে ব্যাটে ঝড় তোলেন পাকিস্তানী অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। ৫ চারে ৩৮ বলে ৫১ রান করেন তিনি। তবে তার এই ইনিংস মলিন হয়ে যায় ত্রিনবাগোর অলরাউন্ডার সুনীল নারাইনের ব্যাটিং তা-বের সামনে। ৫ বল হাতে রেখে ৮ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় তারা। জয়ের জন্য ১৫৩ রান সামনে নিয়ে ২৮ রানে দুই উইকেট হারায় ত্রিনবাগো।

কিন্তু ওপেন করতে নামা সুনীল নারাইন ব্যাট হাতে ছিলেন বিধ্বংসী রূপে। উইকেটে অন্য প্রান্ত থেকে ব্যাটসম্যানরা আসা-যাওয়া করতে থাকলেও তিনি একাই ছিলেন স্থির। ৫ ছক্কা ও ৬ চারে মাত্র ৪৫ বলে ৭৯ রান করেন তিনি। দলের জয় থেকে মাত্র ৮ রান দূরে থেকে আউট হন নারাইন।

নারাইন ছাড়া দুই ভাই ড্যারেন ব্রাভো ২৫ ও ডোয়াইন ব্রাভো করেন ১৮ রান। এছাড়া ত্রিনবাগোর বাকি সাত ব্যাটসম্যানের রান দুই অংকের কোঠা স্পর্শ করেনি। বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান দেয়ার পর ব্যাট হাতে বিধ্বংসী ৭৯ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার সুনীল নারাইন।