গুগল অ্যাডসেন্সে যুক্ত হলো বাংলা ভাষা

অবশেষে বাংলা ভাষার ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স চালু করার ঘোষণা দিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। মঙ্গলবার এক ব্লগপোস্টে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশ, ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলা ভাষার ব্যবহার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব কিছু বিবেচনা করে বাংলায় গুগল অ্যাডসেন্স চালু করলো গুগল।

২০০৩ সালে চালু হওয়া ‘গুগল অ্যাডসেন্স’ এর শুরু থেকেই বিজ্ঞাপন সুবিধা থেকে পিছিয়ে ছিল বাংলা ভাষার ওয়েবসাইটগুলো। এই অ্যাডসেন্স চালুর ফলে অনেক লাভবান হবে বাংলাদেশ।বর্তমানে বিশ্বের প্রায় দেড় কোটি ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স ব্যবহার করা হচ্ছে। ২০১৫ সালেই প্রতিষ্ঠানটি গুগল অ্যাডসেন্স প্রকাশকদের প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার পেমেন্ট দিয়েছে, যা ক্রমবর্ধমান হারে রকেট গতিতে বাড়ছে।

বাংলা ভাষায় অ্যাডসেন্স চালু হওয়ার ফলে এ সংখ্যায় নতুনমাত্রা যুক্ত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।অ্যাডসেন্স গুগলের বিজ্ঞাপন প্রচার প্রোগ্রাম। এ প্রোগ্রামের মাধ্যমে গুগল তৃতীয় পক্ষের বিভিন্ন বিজ্ঞাপন ওয়েবমাস্টার এবং ব্লগের মালিকদের নিকট বণ্টন করে। ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের মাধ্যমে ওয়েবমাস্টাররা অর্থ উপার্জন করতে পারে।

বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত অর্থের ৬৮ শতাংশ (কনট্যান্টের ক্ষেত্রে) এবং ৫১ শতাংশ (সার্চের ক্ষেত্রে) ওয়েবমাস্টারদের মাধ্যমে বিতরণ করে গুগল।উইকিপিডিয়া বলছে, গুগল অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে হলে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটে ন্যূনতম কিছু ভিজিটর প্রয়োজন হবে। তা ছাড়া আপনার ওয়েবসাইটের মান হতে হবে অ্যাডসেন্সের নিয়ম মেনে।

অতঃপর আপনাকে গুগল অ্যাডসেন্সে সাইনআপ করতে হবে। এরপর গুগল আপনার ওয়েবসাইট পর্যবেক্ষণ করার পর আপনার দেয়া সব ইনফর্মেশন ও রিক্রুইটমেন্ট ঠিক থাকলে ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করার অনুমতি দেবে। আর অ্যাডসেন্স শুধু ওয়েবসাইট নয়, ইউটিউব, মোবাইল অ্যাপ ইত্যাদিতেও ব্যবহার করা যাবে।