ছিল ছেলে, হয়ে গেল মেয়ে! বলিউড সুন্দরীর ‘চরিত্র’ অবাক করবে

সিনেমার পর্দায় বরাবর সবাই ছেলে বলেই চেনে। কিন্তু সে যে আসলে মেয়ে। বড় হয়েও তাঁর চেহারায় শৈশবের লাবণ্য।

আহসাস চন্না। বলিউডে পা রেখেছে সেই ছোট বেলায়। সবাই তাঁকে ছেলে বলেই চেনে। কারণ, একের পর এক ছেলের চরিত্রে দর্শকমন বার বার জয় করেছেন আজকের অষ্টাদশী।

মনে পড়ছে ২০০৬ সালের সেই হিট ছবির কথা? ‘কভি আলবিদা না কহে না’ ছবিতে শাহরুখ খানের ছেলের চরিত্রে অভিনয় করেছিল যে ছেলেটি সে-ই এখন অষ্টাদশী এক কন্যা। ৫ অগস্ট জন্মদিন ছিল আহসাসের। ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে নিজেই লিখেছেন— ‘এইট্টিন অ্যান্ড অসাম’।

‘মাই ফ্রেন্ড গণেশা’-র আশু আর অষ্টাদশী আহসাস। — ছবি: ফেসবুক ও ইউটিউব

পাঁচ বছর বয়সে ছোট ছেলের চরিত্রেই রুপোলি জগতে পা রাখেন চন্না। শুরুর ছবিটা ছিল ‘বাস্তু শাস্ত্র’। এর পরে ‘কভি আলবিদা না কহনা’, ‘আরিয়ান’, ‘মাই ফ্রেন্ড গণেশা’ সবেতেই ছেলে সেজেছে মিষ্টি মেয়েটা। প্রথমবার সিনেমাতেও মেয়ে হওয়ার সুযোগ মেলে ২০০৯ সালে। রামগোপাল ভার্মা তাঁর একের পর এক ছবিতে ছেলে সাজিয়ে শেষে ভৌতিক ছবি  ‘ফুঁক’-এ মেয়ে চরিত্র দেন আহসাস চন্নাকে।

আহসাস যখন ‘কভি আলবিদা না কহনা ’-র অর্জুন। — ছবি: ফেসবুক ও ইউটিউব

ছেলেবেলায় অভিনয় করে অনেকেই রুপোলি জগৎকে বিদায় জানিয়েছেন। কিন্তু আহসাস তা করতে চান না। বলিউডে ইতিমধ্যেই খবর, নায়িকা হয়ে ফিরছেন একদা পর্দার সেই মিষ্টি ‘ছেলে’টা। ইতিমধ্যেই স্ক্রিপ্ট হাতে পেয়েছেন বলে খবর।

আহসাস যখন ‘বাস্তু শাস্ত্র ’-র রোহন। — ছবি: ফেসবুক ও ইউটিউব

২০০৪ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত হিন্দি, তামিল, তেলুগু মিলিয়ে ১১টি ছবিতে অভিনয় করে ফেলেছেন আহসাস। টেলিভিশনেও অনেক কাজ করেছেন। এ বার অপেক্ষা বলিউডের নায়িকা হওয়ার।

সূত্র: এবেলা