ডাবের পানি খাবেন যে কারণে !

ডাবের ভেতরের স্বচ্ছ ও সুপেয় পানি নিয়ে আমাদের কৌতুহলের শেষে নেই। ক্লান্তি ও অবসাদ দূর করতে, পানিশূন্যতা প্রতিরোধে এবং শক্তির উৎস হিসেবে কচি ডাবের পানি ভীষণ জনপ্রিয়। আসুন জেনে নেই ডাবের কিছু উপকারিতা সম্পর্কে-

১। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণঃ 
ডাবের পানিতে থাকা ভিটামিন সি, পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। পটাশিয়াম শরীরে লবণের ভারসাম্য ঠিক রাখার মধ্যে দিয়ে ব্লাড প্রেসারকে স্বাভাবিক রাখে।

২। ওজন হ্রাস করেঃ
ডাবের পানিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপকারি এনজাইম হজম ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি মেটাবলিজমের উন্নতিতেও সাহায্য করে থাকে। ফলে খাবার খাওয়া মাত্র তা এত ভাল ভাবে হজম হয়ে যায় যে বদ হজম হওয়া খাবার মেদ হিসেবে জমার সুযোগ পায় না। ফলে ওজন কমতে শুরু করে।

৩। দাঁত ভাল রাখেঃ
ডাবের পানিতে খনিজ লবণ, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাসের উপস্থিতিও উচ্চমাত্রায়। এসব খনিজ লবণ দাঁতের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। দাঁতের মাড়িকে করে মজবুত। অনেকের দাঁতের মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়ে।

৪। ত্বক সুন্দর করেঃ
ক্রিম, শ্যাম্পু, কন্ডিশনার, লোশন ইত্যাদি তৈরিতে নারকেলের পানির ব্যবহার থেকেই বোঝা যায় ত্বক সুন্দর করতে বা রাখতে এটা কতখানি কার্যকরী। ব্রণ, মেছতা বা ত্বকের অন্য কোনো দাগ দূর করে মুখ উজ্জ্বল করতে এটি সাহায্য করে।

৫। মাথা যন্ত্রণা দূর করেঃ 
ডিহাইড্রেশনের কারণে মাথা যন্ত্রণা বা মাইগ্রেনর অ্যাটাক হওয়ার মত ঘটনা ঘটলে যতদ্রুত সম্ভব এক গ্লাস ডাবের পানি খেয়ে নিলে নিমেষেই কষ্ট কমে যাবে। ডাবে থাকা ম্যাগনেসিয়াম এই ধরণের শারীরিক সমস্যার উপশমে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।