শুধু এভ্রিল নয় আরো আট দেশের সুন্দরীরা মুকুট হারিয়েছেন এবার

বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতা ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ এর ৬৭তম আসর শুরু হতে যাচ্ছে আগামী ১৮ নভেম্বর। ১৩০টি দেশের বাছাইকৃত সুন্দরীদের নিয়ে চীনে বসবে এই আসর। তবে ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ এর তথ্য অনুয়ায়ী ১৩০টি দেশের মধ্যে ১১৬টি দেশ ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করেছে মিস ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষকে। কিন্তু ১৯৫১ সাল থেকে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় ১৫ বছর পর বাংলাদেশ সুযোগ পেয়েছে।

এখন আসি মূল কথায়। বাংলাদেশে মিস ওয়ার্ল্ড এর বিজয়ী এভ্রিলকে নিয়ে তুমুল সমালোচনা আর বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়ে গেল সম্প্রতি। তথ্য গোপন করার অপরাধে এভ্রিলকে তার মুকুট হারাতেও হয়েছে। কিন্তু মজার বিষয় হচ্ছে যে, শুধু বাংলাদেশ নয় ২০১৭ এই আসরে আরো এভ্রিল ছিলেন। মানে বাংলাদেশ ছাড়া অারো ৮টি দেশের প্রতিযোগীকেও মুকুট হারাতে হয়েছে এবার। বিতর্কিত হয়ে বাদ পড়েছেন তারা। আছে আরও নানা কারণ।

বাংলাদেশ: ইতোমধ্যেই আপনারা জানেন যে এভ্রিলের বিয়ের তথ্য গোপন করায় অনুষ্ঠান আয়োজকরা তাকে বিজয়ী হওয়া থেকে বাদ দিয়ে দেন। পরবর্তীতে প্রথম রানার আপ জেসিয়া ইসলামকে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ঘোষণা করা হয়। তিনি কিছু দিনের মধ্যে চলে যাচ্ছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ এর মূল আসরে।

ব্রিটিশ ভার্জিন আইসল্যান্ড: আন্তর্জাতিক সময় নিয়ে দ্বন্দের কারণে ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ এর মুকুট হারান সুন্দরী, হেলিনা হিউলেট। পরবর্তীতে হেলিনা হিউলেটের পরিবর্তে মুকুট পরানো হয় খফারা সিলভেস্টারকে। খফারা সিলভেস্টারকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ নির্বাচিত করা হয়। যিনি ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ এর প্রথম রানার আপ হয়েছিলেন।

ক্যামেরন: মিস ক্যামেরন ২০১৬ জুলি জুইমাফাককে শৃঙ্খলাজনিত কারণে মুকুটচ্যুত করা হয়। দেশটি থেকে মিশেল অাঙ্গে মিনকাটাকে মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭ তে অংশ নেওয়ার জন্য মনোনীত করেন মিস ক্যামেরনের জায়গায়। মিস ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ ক্যামেরনের মার্কিন দূতাবাসকে জুলির বিষয়ে এই বলে সতর্ক করে যে, মিস ওয়ার্ল্ড শেষে জুলি আর দেশে না ফেরার পরিকল্পনা করছে। এমন সতর্কতা জারির পর ক্যামেরনের যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জুলিকে ভিসা দেয়নি। জুলি মিস ক্যামেরন ২০১৬ নির্বাচিত হয়েছিল এবং মিনকাটা একই প্রতিযোগিতায় চতুর্থ স্থান অর্জন করেছিল।

কায়মান দ্বীপপুঞ্জ: ক্রিস্টিন আমায়াকে নির্বাচিত করা হয়েছে তার দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য ‌‌মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭ তে ডেরি ড্যাকরিস লির মাধ্যমে। ডেরি ড্যাকরিস লি হচ্ছে কায়মান দ্বীপের ন্যাশনাল ডিরেক্টর মিস কায়মান প্রতিযোগিতা নির্বাচিত করার টিম। ক্রিস্টিন আমায়া যে কিনা আনিকা কনলি মিস কায়মান দ্বীপ ২০১৭ এর স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। আনিকা কনলিকে বাদ দেওয়া হয়েছে মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭ প্রতিযোগিতা থেকে কারণ তার বয়স কম ছিল। ক্রিস্টিন আমায়া প্রথম রানার আপ ছিল মিস কায়মান দ্বীপ ২০১৭ প্রতিযোগিতায়।

ফ্রান্স: মিস ফ্রান্স ২০১৭ অ্যালিসিয়া অ্যায়লিজের পরিবর্তে অরোরি কিচেনিনকে মিস ওয়ার্ল্ড ফ্রান্স হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে। মিস ফ্রান্স পেজেন্টের জাতীয় পরিচালক সিলভি তেলিয়ের এ পরিবর্তেনের কথা জানান। অ্যালিসিয়া অ্যায়লিজ পরবর্তীতে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন। আর মিস ফ্রান্স ২০১৭ প্রতিযোগিতায় কিচেনিন প্রথম রানার আপ হয়েছিলেন। তবে কেন এ পরিবর্তন আনা হয়েছে, তা জানা যায়নি।

গ্রীস: গ্রীসের সুন্দরী প্রতিযোগিতার নাম ‘স্টার হ্যালিাস পেজেন্ট’। এ বছর থিওডোরা সোকিয়া স্টার হ্যালাস ২০১৭ নির্বাচিত হলেও পরবর্তীতে মারিয়া সিলোউকে স্টার হ্যালাস ২০১৭ ঘোষণা করা হয়। তবে কী কারণে এ পরিবর্তন আনা হলো, তা আয়োজকরা জানাননি। স্টার হ্যালাস ২০১৭ প্রতিযোগিতায় সিলোউ অংশই নেয়নি। আয়োজকরা পরে প্রাইভেট কাস্টিংয়ের মাধ্যমে তাকে স্টার হ্যালাস ২০১৭ মনোনীত করে।

ইরাক: বিবাহিত প্রমাণিত হওয়ায় ২০১৭ সালে মিস ওয়ার্ল্ড ইরাক নির্বাচিত হয়েও বাদ পড়েন ভিয়ান আমির সুলাইমান। পরবর্তীতে মিস ইরাক প্রতিযোগিতার পরিচালক আহমেদ লাইথ সালমান, মাস্তি হামা আদিলকে মিস ওয়ার্ল্ড ইরাক নির্বাচিত করেন। মিস ইরাক ২০১৭ পর্বে হালাবজা প্রদেশ থেকে আদিল প্রতিনিধিত্ব করেন। পরবর্তীতে তাকে এ প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ নির্বাচিত করা হয়েছিল।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ডেমি-লেইগ নিল-পিটারসকে ২০১৭ সালের মিস দক্ষিণ আফ্রিকা নির্বাচিত করা হয়। কিন্তু নিল পিটারস একই সময়ে চলতে থাকা মিস ইউনিভার্সেও প্রতিযোগিতা করতে চেয়েছিলেন। মিস ওয়ার্ল্ড এবং মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার শিডিউল জটিলতার কারণে মিস দক্ষিণ আফ্রিকা প্রতিযোগিতার পরিচালক মেলিন্ডা বাম এ্যাডি, ভ্যান হারদিনকে নতুন মিস ওয়ার্ল্ড দক্ষিণ আফ্রিকা নির্বাচিত করেন। ভ্যান হারদিন প্রথমে প্রতিযোগিতাটির প্রথম রানার আপ ছিলেন।

তুরস্ক: মিস ওয়ার্ল্ড তুরস্ক ঘোষণার ১ ঘণ্টার মধ্যে তুরস্ক সরকার নিয়ে টুইটারে বিরূপ মন্তব্য করায় মুকুট হারান ইতির ইসেন। মিস তুরস্ক ২০১৭ প্রতিযোগিতার পরিচালক ক্যান স্যানডিকসিওগলু মিস তুরস্ক ইউনিভার্স, আসলি সুমেনকে মিস ওয়ার্ল্ড তুরস্ক নির্বাচিত করেন। তবে ঠিক কি কারণে তাকে বদল করা হয় তা আয়োজক কমিটি প্রকাশ করেনি কোথাও।

উল্লেখ্য, মিস ওয়ার্ল্ড ফাস্ট ট্র্যাকে প্রদর্শিত হবে টপ মডেল, ট্যালেন্ট, মাল্টিমিডিয়া, স্পোর্ট, বিউটি উইথ অ্যা পারপোজ, এবং নতুন ‘হেড টু হেড’ চ্যালেঞ্জসহ আরো ৩০০০ মিডিয়া পার্টনারের সৌজন্যে। মিস ওয়ার্ল্ড ফাইনাল শো সেট ডিজাইন করেছেন বেইজিং রাইজ, যারা কিনা বেইজিং অলিম্পিক গেমস এবং ইউরোভিশন সং কন্টেস্টেরও আয়োজন করেছিলেন। বর্তমানে সেটটি গভীর তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে, সানায়া সিটি এরেনা- একদম নতুন ভেন্যু এ বছরের ফাইনাল অনুষ্ঠানের জন্য। তাহলে আপনি রেডি তো দেখতে কে হতে যাচ্ছেন মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭?