আমার হাত দ্যাখো, ঠিক হয়ে গেছে : মুক্তামনি

মুক্তামনির হাতের ব্যান্ডেজ রবিবার (১৫ অক্টোবর) খুলে দেওয়া হয়েছে। এখন তার হাত পুরোটাই দেখা যাচ্ছে। বারবার অস্ত্রোপচারের পর যে মুক্তামনিকে এতদিন পরিশ্রান্ত ও ক্লান্ত দেখা যেত সেই মেয়েটি আজ অন্য রকম ছিল। দরজা খুলে এই প্রতিবেদক কেবিনে ঢুকতেই হেসে দিয়ে সে বলে, ‘আমার হাত দ্যাখো, ঠিক হয়ে গেছে। আমি ভালো আছি।’

রবিবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেনসহ ইউনিটটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম মুক্তামনিকে তার কেবিনে দেখতে যান।

এ ব্যাপারে অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম বলেন, ‘মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) মুক্তামনির হাতে চামড়া লাগানোর পর শনিবার ড্রেসিং করা হয়েছে। আর ড্রেসিংয়ের পর হাতটি খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কারণ, চামড়া লাগানো স্থানে ময়লা লাগলো কিনা, জীবাণু জন্মালো কিনা, এ ব্যাপারগুলো পর্যবেক্ষণের বিষয় রয়েছে।’

কয়েক ধাপে অপারেশনের মাধ্যমে সাড়ে চার কেজির বেশি মাংসপিণ্ড ফেলে দেওয়ার পর মুক্তামনির হাত এখন অনেকটাই স্বাভাবিক। মুক্তামনি নিজেই তার হাত দেখে আনন্দিত।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন