পোস্ত-চিংড়ি মাছে পটলের দোলমা

গরমকালের একটি সবজি হলো পটল। অনেকেরই এই সবজিটা ভালো না লাগলেও পটলের দোলমা কিন্তু সবার পছন্দের। আর এটা যেন বাড়িতে একটু উৎসব উৎসব ভাব এনে দেয়। পটল, চিংড়ি মাছ আর পোস্ত দিয়ে এই রেসিপিটা বানাতে পারেন। আরো সুস্বাদু হবে। তাই চলুন দেখে নেয়া যাক রেসিপিটা-

উপকরণ :
১. চিংড়ি- ২৫০ গ্রাম
২. পোস্ত- ২ চামচ
৩. সরিষা- ১ চামচ
৪. কাঁচা মরিচ- ৫ টা
৫. পটল- ৬টা
৬. লবণ– স্বাদ মতো
৭. সরিষার তেল- ২ চামচ
৮. পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ
৯.মরিচ গুঁড়ো- হাফ টেবিল চামচ
১০. দই- ১ টে. চামচ বানানোর

পদ্ধতি:

১. প্রথমে পটলের মাথাটা কেটে নিন।

২. এবার একটা চামচের সাহায্যে পটলের ভেতর থাকা বীজগুলি বার করে ফেলুন।

৩. এবার পটলগুলো ধুয়ে নিন।

৪. একটা বাটিতে পরিমাণ মতো পানি নিয়ে তাতে চিংড়া মাছগুলি ফেলে পানিটা ফোটান। এই পানিতে অল্প করে লবণ দিন।

৫. পোস্তো, কাঁচা মরিচ, লবণ এবং সরিষা এক সঙ্গে বেটে নিন।

৬. একটা কড়াই নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো তেল নিয়ে গরম করে নিন। তাতে বয়েল করা চিংড়ি মাছগুলি দিয়ে দিন।

৭. এবার চিংড়ি মাছ আর তেলের মধ্যে পোস্তবাটা দিয়ে নাড়তে থাকুন।

৮. চিংড়ি মাছটা রান্না হয়ে গেলে আঁচটা বন্ধ করে দিন।

৯. চিংড়ি মাছ দিয়ে তৈরি পুরটা ঠান্ডা হয়ে গেলে তা থেকে পরিমাণ মতো নিয়ে পটলের মধ্যে চেপে চেপে ঢুকিয়ে দিন।

১০. এবার ১ চামচ সরিষার তেল গরম করুন। যখন তেলটা গরম হয়ে যাবে তখন তাতে পেঁয়াজবাটা ও মরিচগুঁড়ো মিশিয়ে ২-৩ মিনিট নাড়ান। সময় হয়ে গেলে এতে দই মেশান। সবকটি উপকরণ দেওয়া হয়ে গেলে ভাল করে মিশ্রনটি নাড়াতে থাকুন। তারপর তাতে পটলগুলি দিয়ে পুনরায় নাড়াতে থাকুন। এমনটা করলে মশলাগুলো ভাল করে পটলের সঙ্গে মিশে যেতে পারবে।

১১. পোস্ত এবং চিংড়ি মাছ দিয়ে তৈরি পটলের দোলমা তৈরি হয়ে গেছে। এবার পরিবেশনের পালা।