দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে দ্রুততম ‘হাজারি ক্লাবে’ বিজয়

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শাহরিয়ার নাফীসের সাথে যৌথভাবে দ্রুততম ১০০০ রান করার গৌ্রব অর্জন করলেন দীর্ঘ দিন পর জাতীয় দলে ফেরা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়। ত্রিদেশীয় সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের বিপক্ষে এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি।

প্রায় তিন বছর পর জাতীয় দলে ফিরেই গড়তে পারতেন রেকর্ডটি। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের সামনে সুযোগ ছিল শাহরিয়ার নাফীসকে পেছনে ফেলারও। সে জন্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজের প্রত্যাবর্তনী ইনিংসে তাকে করতে হতো ৫০ রান। দারুণ শুরুর পর ১৯ রানে ফিরে গেলে তা আর সম্ভব হয়নি। অপেক্ষা বাড়ে ওয়ানডেতে এক হাজারি ক্লাবে প্রবেশেরও।

তবে অপেক্ষা আর বাড়তে দেননি ২৫ বছর বয়সী বিজয়। ত্রিদেশীয় সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে এসেই কাঙ্ক্ষিত মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি। ৩৫ রান করে পেরেরার বলে আউট হওয়ার আগে ইনিংসের ১৪তম ওভারে চার মেরে ১৯তম বাংলাদেশি হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১০০০ রান করার সাথে যৌথভাবে হয়ে উঠলেন হাজারি ক্লাবে বাংলাদেশের দ্রুততম সদস্য।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হাজারি ক্লাবে প্রবেশের জন্য ২৯ ইনিংস সময় নিলেন বিজয়। ৩৫ এর চেয়েও বেশি গড়ে পূর্ণ করলেন এই রান। প্রসঙ্গত, বিজয়ের আগে শাহরিয়ার নাফীসও ২৯ ইনিংসে নাম লেখান হাজারি ক্লাবে। তাছাড়া বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ইমরুল কায়েস ও নাসির হোসেন এই ক্লাবের সদস্য হতে সময় নেন ৩৪ ইনিংস করে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি রানের মালিক দেশসেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। প্রায় ৩৫ গড়ে তার রান ৫৮০০ এরও বেশি। এরপরেই অবস্থান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। দুজনই বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে রয়েছেন পাঁচ হাজারি ক্লাবে।—bdcrictime

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে দ্রুততম ১,০০০ রান করার তালিকার শীর্ষ চার ক্রিকেটার-

ইনিংস                                 নাম           
২৯                                  শাহরিয়ার নাফীস
২৯                                  এনামুল হক বিজয়
৩৪                                  ইমরুল কায়েস
৩৪                                  নাসির হোসেন