এবার থারাঙ্গাকে সাজঘরে ফিরালেন মাশরাফি

 

অাজ হাইভোল্টেজ ম্যাচে হাতুরুসিংহের শ্রীলঙ্কাকে আতিথ্য দেবে টিম বাংলাদেশ। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হয়েছে বেলা ১২টায়। টুর্নামেন্টের তৃতীয় ম্যাচ এটি। মিরপুরে ১০১তম ওয়ানডে।

ত্রিদেশীয় সিরিজে জয়ের ধারা বজায় রাখতে শ্রীলংকার বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিং নিয়েছেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। হাতুরুসিংহের শ্রীলঙ্কাকে ৩২১ রানের বিশাল টার্গেট দিল বাংলাদেশ। জবাবে এখন ব্যাটিং করছে শ্রীলঙ্কা। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার স্কোর: ৫১/২ ওভার: ১১।

প্রথমেই বোলিংয়ে আসেন নাসির হোসেন। প্রথম ওভারে তিনি ২ রান দেন। পরে মাশরাফির ওভারে অাসলে ০ রানে দ্বিতীয় ওভার শেষ করেন তিনি। তৃতীয় ওভারে আবারো আসেন নাসির। এসে কুশল পেরারাকে আউট করেন তিনি।দশম ওভারের ৪র্থ বলে মাহমুদুল্লাকে ক্যাচ দেন থারাঙ্গা(২৫)।

এদিকে, এই দিন তামিমের সাথে ব্যাটিংয়ে আসেন ৩৪ মাস পর দলে ডাক পাওয়া এনামুল হক বিজয়। কিন্তু ব্যক্তিগত দুই রানের মাথায় নতুন জীবন পান বিজয়। লাকমলের বলে কাভার ড্রাইভ শর্ট খেলতে গিয়ে স্লিপে ক্যাচ তোলেন এই ডান হাতি ব্যাটসম্যান।

কিন্তু সেই ক্যাচ ফেলিয়ে দেন কুশাল মেন্ডিস। এরপর নতুন জীবন পেয়ে এগিয়ে যেতে থাকেন বিজয়। কিন্তু ব্যস্ত বিজয় বেশিওক্ষণ ব্যাট করতে পারলেন না ৩৫ রান করে ক্যাচ আউট হয়ে ফিরে যান সাজ ঘরে।

টাইগার একাদশে আজ একটি পরিবর্তন এসেছে। সানজামুল ইসলামের পরিবর্তে একাদশে জায়গা পেয়েছে পেসার সাইফউদ্দিন। অন্যদিকে ইনজুরির কারনে মাঠের বাহিরে আছেন লংকান ক্যাপ্টেন ম্যাথিউজ।

এদিকে, শ্রীলঙ্কার সামারাবিরা জানান, গেল ম্যাচের উইকেটটা ভালো ছিল। আসলে আমরাই আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারিনি। আজকের ম্যাচে আমরা যদি আগের ম্যাচের ভুল শোধরাতে পারি তাহলেই ভালো। এখনো আমাদের সিরিজ শেষ হয়ে যায়নি।

মাশরাফি বলেন, বোলিংয়ের দিক থেকে সবাই ভালো করেছে। শ্রীলঙ্কাকে ২৭০/২৮০ রানের ভেতরে রাখার সামর্থ্য আমাদের অবশ্যই আছে। ওরা ভালো ব্যাটিং করলেও নিজেদের পরিকল্পনা ঠিকঠাক বাস্তবায়ন করতে পারলে যে রানের ভেতরে ওদের আটকাতে চাই তা করার সামর্থ্য আমাদের আছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অন্যরকম ক্রিকেট খেলেছে জিম্বাবুয়ে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওইরকম খেলতে চান মাশরাফি।

টাইগার একাদশ: তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয়, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন , মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।