অনন্ত জলিল পবিত্র ইসলাম প্রচারে এখন লন্ডনে

এম.এ. জলিল অনন্ত, যিনি অনন্ত জলিল হিসেবেই বেশি পরিচিত। তিনি বাংলাদেশি চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, নায়ক ও ব্যবসায়ী। তবে গত কয়েক বছর ধরে ঢাকাই ফিল্মের আলোচিত এ নায়ক বেশির ভাগ সময় ফিল্মের চাইতে তার ধর্মীয় মনোভাবের কারণেই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন! এরই ধারাবাহিকতায় রুপালী পর্দার এ নায়ক রবিবার (৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাতটার ফ্লাইটে সুদূর লন্ডনে ধর্ম প্রচারে করতে তিন দিনের চিল্লায় যোগ দিতে ঢাকা ত্যাগ করেছেন।

আর এরপর ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক কাজ শেষে ১০ তারিখ ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে তার। আর সফরে অনন্ত জলিলের সঙ্গী হিসেবে রয়েছেন মাওলানা উসামা ও মেকআপ আর্টিষ্ট মনির হোসেন। এদিকে গত বেশ কয়েক বছরে এই নায়কের পোশাকে এসেছে আমূল পরিবর্তন। ইসলাম ধর্মের প্রচার এবং প্রসারে তিনি এখন নিবেদিত প্রাণ।

ঢাকাই চলচ্চিত্র যখন দর্শক খরায় ভুগছিলো তখন অনন্ত জলিল নতুনত্বের চমক আর ব্যয়বহুল চলচ্চিত্র নির্মাণের মাধ্যমে হলমুখী করেছিলেন দর্শককে। শাকিব খান ছাড়া যখন ঢালিউড অচল তখন হঠাৎ আবির্ভাব ঘটে অনন্তর। একের পর এক আলোচিত ও সমালোচিত চলচ্চিত্র প্রযোজনা ও নির্মাণ করে তিনি দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পৌঁছান। ২০১০ থেকে এ পর্যন্ত চারটি চলচ্চিত্রের প্রযোজনা ও দুটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন অনন্ত।

পেশাগত জীবনে গার্মেন্টস ব্যবসায়ী অনন্ত জলিল সামাজিক কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে এ পর্যন্ত ৩টি এতিমখানা নির্মাণ করেছেন। মিরপুর ১০ এ বাইতুল আমান হাউজিং ও সাভার মধুমতি মডেল টাউনে আছে এতিমখানাগুলো। এছাড়াও সাভারের হেমায়েতপুরের ধল্লা গ্রামে সাড়ে ২৮ বিঘার উপর একটি বৃদ্ধাশ্রম নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন অনন্ত জলিল। তিনি ঢাকার হেমায়েতপুরে অবস্থিত বায়তুস শাহ জামে মসজিদের নির্মাণ কাজেও অবদান রাখেন।-প্রিয়.কম