পপির দৌড় ঘোষণাতেই শেষ

ফিরে আসার লড়াইয়ে শাবনূর, পূর্নিমাকে ছাড়িয়ে অনেকটা এগিয়ে ছিলেন সাদিকা পারভিন পপি। নির্বাচন করেছেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তার ডাক পড়ছে, সামাজিক সচেতনতার কাজ করছেন সেই সাথে বারবার ঘোষণা দিচ্ছেন ছবিতে ফেরার। আর এই সব সফল করতে অতিরিক্ত মেদ ঝাড়িয়ে আবার তরুনী বেশ ধরেছেন।
কিন্তু আসলেই কি তিনি ফিরবেন?নাকি ফাঁকাবুলি দিতে দিতে এক সময় আরেক অভিনেত্রী শাবনূরের মত হারিয়ে যাবেন।বছর শেষ হতে না হতেই ‘যুদ্ধ শিশু’ এবং ‘টার্ন’ নামের দুটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন পপি।

শহীদুল হক খানের পরিচালনায় সেই ছবি দুটির কাজও শিগগিরই শুরু হবে বলে জানিয়েছিলেন। এরমধ্যে ‘যুদ্ধ শিশু’ ছবির মহরতও ঘটা করে করেন। কিন্তু এখনো ছবি শুরুর নাম গন্ধ নেই।এর আগে ২০১৭ সালের শুরুর দিকে ‘রাজপথ’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন পপি, এমন কথা মিডিয়াতে চাউর হয়। জাভেদ জাহিদের পরিচালনায় এ ছবিতে পপির বিপরীতে জায়েদ খান থাকবে বলে জানা গিয়েছিলো। অন্যান্য ছবির মত এই ছবিও আলোর মুখ দেখেনি।

সম্প্রতি আবার জানা যায়, ‘পাথরের মন’ নামের একটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল। সেই ছবিতেও পপি চুক্তিবদ্ধ হবেন বলে শোনা যাচ্ছে।এদিকে কোন ছবির কাজ শুরু করার আগেই গতকাল আবার নতুন ছবির ঘোষণা দিলেন পপি। পপি বলেন, পরিচালক সাদেক সিদ্দিকীর নাম চূড়ান্ত না হওয়া একটি ছবিতে কাজ করতে দেখবেন দর্শক। চলতি মাসেই এ ছবির মহরত হবে। আগামীকাল হবে গানের রেকর্ডিং।

একের পর এক ছবিতে সাইন করছেন আর ঘোষণা দিয়ে সংবাদে আলোচনায় থাকছেন, আপাতত পপির দৌড় এ পর্যন্তই। তবে অনেকেই শীর্ষ জনপ্রিয় নায়িকাদের এমন ফাঁকাবুলিতে বিরক্ত। সিনেমা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, তারা এভাবে ভক্তদের সাথে প্রতারণা করছেন। তবে জ্যেষ্ঠ সিনেমা বিশ্লেষকদের মতে, তারা আসলে এখন ক্যামেরার সামনে আসতে ভয় পান। কারণ সিনেমা উত্তরণের এই সময়ে তারা আগের মত জনপ্রিয়তা পাবেন কিনা সেটা নিয়ে আছে সংশয়।