ছবিগুলো আপনাকে দেখাবে সিরিয়া কতোটা সুন্দর ছিলো! (দেখুন ছবিগুলো)

সিরিয়া যেন একটা বিধ্বস্ত নাম আমাদের কাছে। একটি পুরো জনপদ আমাদের সামনে আজ বিধ্বস্ত হয়ে যাচ্ছে। শুধুমাত্র ক্ষমতার দখল নিয়ে পুরো একটি দেশকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করা হয়েছে! বিগত পাঁচ বছর ধরে যেন এক নিঃসীম দুঃস্বপ্নের মাঝে বাস করছে সিরিয়া।

বহুধাবিভক্ত বিভিন্ন পক্ষের বিভিন্ন স্বার্থের বিভিন্ন বাহিনীর বর্বরতা-নৃশংসতা আর চোখের পানিতে ভেসে যাওয়া এক জনপদের নাম হয়েছে সিরিয়া। ইরাক, আফগানিস্তান, লিবিয়া, ইয়েমেন এর পথ ধরে সিরিয়াও যেন মধ্যপ্রাচ্যের এক নতুন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হচ্ছে!

দেশটিতে চলমান গৃহযুদ্ধে ইতোমধ্যেই ঘটেছে অন্তত আড়াই লাখ মৃত্যু। সরকারবিরোধী বিক্ষোভ থেকে পুর্ণাঙ্গ গৃহযুদ্ধে জর্জরিত এখন তারা। অহর্নিশ মৃত্যুভয়ে থাকা ১ কোটি ১০ লাখ মানুষ হয়েছে বাস্তুহারা। ২০১১ সালের মার্চে শুরু হওয়া এই সংকট এখনো পর্যন্ত শেষ হবার কোন আশা দেখা যাচ্ছে না।

দেশটি এখন শুধুই রক্ত আর ধুলোবালির স্তূপে পরিণত হয়েছে। বাস্তুহারা হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে হাজারো মানুষ। একমুঠো খাবার আর দেশ ছেড়ে পালানোর আকুতি তাদের মাঝে। অথচ কতই না সুন্দর ছিল এই সিরিয়া! সুখশান্তি আর সমৃদ্ধিতে বসবাস করতো সিরিয়ার মানুষজন। অসাধারণ সব স্থাপনা আর ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ ছিলো সিরিয়া।

আজ ফাঁপরবাজে আমরা আপনাদের জন্য সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ শুরুর আগের কিছু ছবি উপস্থাপন করেছি। এই ছবিগুলো দেখলেই আপনি বুঝতে পারবেন কতো সুন্দর ছিলো সিরিয়া। সহিংসতা সিরিয়ার আজ কি অবস্থা করেছে তা চিন্তা করলে আপনার গা শিউড়ে উঠবে।

ছবি ১- সালাহ এল-দীন এর প্রাসাদ

ছবি ২- টারটাস

ছবি ৩- টারটাস

ছবি ৪- কালেট জাবারের ক্যাসল

ছবি ৫- পালমিরা

ছবি ৬- মাশা আল-হিলু, টারটাস

ছবি ৭- লাত্তাকিয়া

ছবি ৮- লাত্তাকিয়া

ছবি ৯- তমাম আযম এর ‘ফ্রিডম গ্রাফিতি’

ছবি ১০- হামা জল চাকা

তথ্য ও ছবি: সংগৃহীত।