কলকাতার রাস্তায় বাসের মধ্যে তিন বছরের শিশুকে ধর্ষণ

মাত্র তিন বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক বাস খালাসির বিরুদ্ধে ৷ ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার মানিকতলা থানা এলাকায় ৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ৷

বিকেলে দাদার সঙ্গে খেলছিল ৩ বছরের ওই শিশু ৷ সেই সময় শিশুটির উপর যৌন নির্যাতন চালানো হয় বলে অভিযোগ ৷ খেলার সময় বল কুড়োতে রাস্তায় যায় ওই শিশুকন্যা ৷ সেখানেই একটা বাস দাঁড়িয়েছিল বলে জানা গিয়েছে ৷ বাসের খালাসি মহম্মদ সফি শিশুটিকে ভুলিয়ে নিয়ে বাসের ভিতরে ঢুকে পড়ে ৷ বাসের দরজা বন্ধ করেই শিশুর উপর নির্যাতন চালায় সে ৷

শিশুটির বড় ভাই বাসের দরজায় বেশ কিছুক্ষণ ধরে ধাক্কা দেয়, বোনকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য কান্নাকাটিও করতে থাকে। ব্যর্থ হয়ে সে নিজের মা-কে ডেকে নিয়ে আসে। স্থানীয় মানুষরা সেখানে জড়ো হয়ে বাসের দরজা ভেঙে ফেলতেই দেখতে পান যে বাসের ভেতরের একটি সিটের ওপরে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ওই শিশু-কন্যাটি। বাসের খালাসীর হাতে আর পোশাকেও রক্তের দাগ দেখা যায়।

পুলিশে খবর দেওয়া হলেও তারা এসে পৌঁছানোর আগেই ওই খালাসীকে মারধর করতে শুরু করে স্থানীয়রা। শিশুটিকে প্রথমে একটি স্থানীয় নার্সিং হোমে, পরে আর জি কর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অভিযুক্ত  ওই খালাসীর বিরুদ্ধে ‘পক্সো’ আইনে মামলা করা হয়েছে। ফরেনসিক বিশ্লেষণের জন্য আটক করা হয়েছে বাসটিও।-নিউজ১৮।