ডা. শাওন কি বেঁচে আছেন ?

নেপালের কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজটিতে ছিলেন রংপুরের এক ডাক্তার দম্পত্তি। তারা হলেন- রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. রিজওয়ানুল হক শাওন এবং তার স্ত্রী তাহিরা তানভীর শসী।বিবাহ বার্ষিকী পালন করতে নেপালে যাচ্ছিলেন ওই দম্পতি।

তবে নেপালে নামার আগেই তাদের বহনকারী ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি বিধ্বস্ত হলে শাওন-শশী দু’জনই নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পরিবার থেকে।কিন্তু পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ডা. শাওন আহত হয়ে নেপালের ওম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ফলে এ নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

শশীর মামা শহীদুল ইসলাম পুলক জানান, দুর্ঘটনায় তার ভাগ্নি ও ভাগ্নি জামাই নিহত হয়েছে। এদিকে, গতকাল সোমবার সকালে শশীর বাবা ডা.রেজা হাসান নেপালে গেছেন।দুর্ঘটনার পর রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডা. শাওনের বন্ধু ডা. কামরুল হুদা আপেল জানান, দুর্ঘটনার পরপরই নেপালের আমাদের কয়েকজন ছাত্রর সাথে যোগাযোগ করি।

তারা দ্রুত সেখানে গিয়ে খোঁজখবর নেন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডা. রিজওয়ানুল হক শাওন এবং তার স্ত্রী তাহিরা তানভীর শসীর ছবি পাঠান। এতে তারা জানান- শসী নেপালের কাঠমান্ডুর ওম হাসপাতালে আইসিইউতে মারা গেছেন। এছাড়া চিকিৎসাধীন ডা. রিজওয়ানুল হক শাওনের শরীরের ৫০ ভাগেরও বেশি পুড়ে গেছে।

মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার উপ পরিদর্শক(এসআই) আব্দুস সালাম জানান, সোমবার রাত ১১টার দিকে জানা গেছে নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় শাওন ও শশী নামে মানিকগঞ্জের এক দম্পতি মারা গেছেন। এ বিষয়ে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।