আপনার স্ত্রী পরকীয়ায় জড়িয়েছে, বুঝবেন কিভাবে ?

স্বাভাবিকভাবেই আপনার সঙ্গীকে আপনার চেয়ে আর কেউ ভাল করে চেনে না। তার ওঠা-বসাই আপনাকে বুঝিয়ে দেয়, সে কেমন আছে, কি ভাবছে ইত্যাদি। কিন্তু এক সময় এমন হয় সেই চেনা মানুষটাই অচেনা হয়ে ওঠে। তখনই শুরু হয় সন্দেহ, বাড়তে থাকে অশান্তি। তবে সবসময় এইভাবে অহেতুক সন্দেহ না করে, বোঝার চেষ্টা করা উচিৎ যে আপনি যা ভাবছেন সেটা আদৌ সত্যি কিনা। তার কিছু উপায়ও রয়েছে…

বিছানায় অনুৎসাহী: আপনি আগে দেখেছেন আপনার পার্টনার আপনার সঙ্গে যৌনতায় বিশেষ উৎসাহী। হঠাৎ, কিছুদিন ধরে যেন সেরকমটা আর নেই। বিছানায় তেমন উৎসাহ পাচ্ছেন না। তাহলে বুঝতে হবে অন্য কোথাও সেই উৎসাহ খুঁজে পেয়েছেন তিনি।

ম্যাসেজের উত্তর নেই: কাজের জন্য ফোন ধরার সময় হয়ত নাও হতে পারে। তবে টেক্সট বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটা ছোট্ট উত্তর দেয়া যেতে পারেই। অন্তত আগে তেমনটাই হত। কিন্তু, ইদানিং দেখছেন মেসেজ দেখা হচ্ছে না অনেকক্ষণ ধরেই। দেখলেও উত্তর নেই। তবে কি কাজের বাইরে অন্য কোথাও ব্যস্ত উনি? সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না।

বাড়ছে খরচ: সংসার খরচ চালান দু’জনে মিলেই। এমনিতে বেশ সচ্ছল অবস্থা। তবে ইদানিং দেখছেন টাকায় বেশ টান পড়ছে। কোথা থেকে টাকা খরচ হয়ে যাচ্ছে হিসেব পাচ্ছেন না। ভেবে দেখুন, আপনার সঙ্গী অন্য কোথাও টাকা খরচ করছে না তো?

গিফটের বন্যা: কোনো অনুষ্ঠানে উপহার দেয়ার মধ্যে দোষের কিছু নেই। তেমনটা তো হয়েই থাকে। তবে, হয়ত দেখলেন কোনো কথা নেই, বার্তা নেই হঠাৎ একটা সারপ্রাইজ গিফট, অতিরিক্ত ভালবাসা, এসব কিন্তু সন্দেহের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। হয়ত কোথাও অপরাধবোধ থেকেই এইসব উপহার। এমনটা হলে সঙ্গীকে ভালভাবে অবজার্ভ করার চেষ্টা করুন।

দূরত্ব: আপনার সঙ্গী কি হঠাৎ খুব ‘মুডি’ হয়ে উঠেছে? সবসময় ঠাণ্ডা মেজাজ? তাহলে সন্দেহের অবকাশ আছে বটে। হয়ত দেখলেন বাড়ি ফিরেও বাড়িতে মন নেই। বারান্দায় চুপচাপ বসে আছে কিংবা ফোনের দিকে একদৃষ্টে তাকিয়ে। অর্থাৎ, মন অন্য কোথাও।

হবি পরিবর্তন: টিভিতে কোনো শো দেখা হয়ত আপনার সঙ্গী আগে পছন্দ করতেন না, এবার দেখছেন সেই শো’র দিকেই হাঁ করে তাকিয়ে আছেন তিনি। এটা একটু অদ্ভুত। হয়ত অন্য কারও জন্য ওই বিষয়ে উৎসাহ পেয়েছেন তিনি।

ভুলো মন: আনতে বললেন চাল, এনে দিল বিস্কুট। এক-দু’দিন হলে ঠিক আছে। কিন্তু নিয়মিত এমনটা হওয়া তো ঠিক নয়। কেন বারবার এরকম হচ্ছে, সেটা খতিয়ে দেখতে হবে।