ফেদেরারের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ কোহলি

টেনিসের কোর্টে ৩০ বছর হলে ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চান টেনিস খেলোয়াড়রা। আর সেখানে একদমই ব্যতিক্রম সুইস তারকা রজার ফেদেরার। একের পর এক গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে টেনিস দুনিয়ায় চমকের পর চমক দিয়েই যাচ্ছেন ৩৬ বছর বয়সী ফেদেরার।

সুইস এই টেনিস তারকায় বুঁদ হয়ে রয়েছেন পৃথিবীর তাবৎ ক্রীড়াপ্রেমী। এবার ভারতয়ি অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানালেন ফেদেরারের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ তিনিও।

সবচেয়ে বেশি বয়সে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে চড়ে কদিন আগেই ফেদেরার গড়েছেন রেকর্ড। সঙ্গে ফেদেরার অর্জনের ঝুলিতে রয়েছে সর্বাধিক ২০ গ্র্যান্ড স্ল্যামের মুকুট। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ফেদেরারও শরীরটাকে প্রস্তুত করেছেন ধকল নেয়ার মতো করেই।

এই তো শেষ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগের বছরটাতেই ফেদেরার নিজেকে রেখেছিলেন টেনিসের বাইরেই। আবার যখন ফিরলেন, তখন জিতে নিলেন নিজের ষষ্ঠ অস্ট্রেলিয়ান ওপেন শিরোপা।

সাফল্য পেতে যথার্থ বিশ্রামের প্রয়োজনটা যে ভীষণ জরুরি, সেটা কোহলির চেয়ে ভালো বোঝার কথাও নয় কারো। ক্যারিয়ারকে আগলে রাখতে ফেদেরারের এমন নিবেদনে মুগ্ধ হয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। নিজের শরীরটাও ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচিতে বলা চলে জর্জরিতই। আর তাই কোহলি নিজেও এ মুহূর্তে রয়েছেন বিশ্রামে।

মঙ্গলবার একটি ইভেন্টের প্রচারমূলক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন কোহলি। সেখানেই সুইস টেনিস কিংবদন্তীর বন্দনায় পঞ্চমুখ ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তার খেলা সব সময়ই সুন্দর। লোকের কান না দিয়ে তিনি তার শরীরের কথা ভেবেছেন। আর তাতেই পেয়েছেন সাফল্য, একের পর গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেই চলেছেন। আমার ভীষণ ভালো লাগছে এটা দেখে যে, ৩৬ বছর বয়সেও তিনি সব যুক্তিতর্ককে হার মানাচ্ছেন।

সাধারণ হওয়াটা আমার ঠিক পছন্দ নয়। সব বাধা পেরিয়ে তিনি হয়ে উঠেছেন অসাধারণ। ফেদেরারের প্রতি আমার রয়েছে দারুণ শ্রদ্ধা।’