গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে নৈশকোচ খাদে পড়ে নিহত ৮, আহত ৩০

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জ ঢাকা বরিশাল মহাসড়কের মুকসুদপুর উপজেলার বরইতলা নামক স্থানে বরিশালগামী সুগন্ধা পরিবহনের একটি নৈশকোচ খাদে পড়ে ৮ যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে কমপক্ষে আরো ৩০ জন। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার রাত আড়াইটার দিকে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এজাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, শনিবার রাতে ঢাকা থেকে সুগন্ধা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী নৈশ কোচ বরগুনা যাচ্ছিল। বাসটি রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে মুকসুদপুর উপজেলার বরইতলা নামক স্থানে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই ৬ জনের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হয় কমপক্ষে আরো ৩০ জন। খবর পেয়ে মুকসুদপুর থানা পুলিশ, ভাঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসসহ স্থানীয় জনগনের সহযোগীতায় উদ্ধার কাজ চালানো হয়।

গুরুতর আহতদের মুকসুদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফরিদপুর মেডিকের কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে আরো একজন যাত্রীর মৃত্যু হয়। নিহতদের মধ্যে ২ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, বরিশালের অসিম মাঝি (৩৫) ও বরগুনার হাসান মিয়া (২৫)। বাকিদের পরিচয় এখনও নিশ্চিত করা যায়নি।

সড়ক দূর্ঘটনায় হতাহত অন্যান্যদের বাড়ি মাদারীপুর, বরিশাল ও বরগুনা জেলার বিভিন্ন এলাকায়।