তারকাদের রঙিন বৈশাখ !

নানা আয়োজনে পালিত হলো পহেলা বৈশাখ। বাংলা বর্ষ বরণের এই উৎসব আমাদের সংস্কৃতির অন্যতম ঐতিহ্য। গ্রাম থেকে শুরু করে দেশের সব শ্রেণী ও পেশার মানুষ এই উৎসবে অংশ নেয়। পিছিয়ে নেই শোবিজ তারকারাও। তারা অবশ্য অনেক আগে থেকেই বৈশাখী আয়োজনে অংশ নেন। অর্থাৎ নাটক সিনেমায় অভিনয় করেন বৈশাখকে সামনে রেখে। অভিনয়ের ব্যস্ততার মাঝে বৈশাখের দিনে বিরোতি নিয়ে তারকারাও উৎসবে মেতে ওঠেন। আবার কেউ কেউ অতিথি হিসেবে বৈশাখী আয়োজনে অংশ নেন।

পয়লা বৈশাখে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের শাহীন হলে বসেছিল তারার মেলা। টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রোডিউসার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, ডিরেক্টর্স গিল্ড, অভিনয়শিল্পী সংঘ, টেলিভিশন নাট্যকার সংঘ, প্রেজেন্টার্স প্ল্যাটফর্ম অব বাংলাদেশ, ক্যামেরাম্যান অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, টেলিভিশন নাট্যশিল্পী, নাট্যকার সংসদসহ বেশ কিছু পেশাজীবী সংগঠন বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের এ আয়োজন করে। ‘মানুষ ভজলে সোনার মানুষ পাবি’ স্লোগান নিয়ে সকাল থেকে অনুষ্ঠান শুরু হয়। দিনভর তারকাদের পদচারণে মুখর ছিল অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ।

তাঁরা এসেছেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেছেন, আড্ডা দিয়েছেন এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।অপরদিকে ঢাকাই সিনেমার রাণী মাহিয়া মাহি পরিবারের সঙ্গেই বৈশাখ উযদপন করেছেন। ঘরোয়া আয়োজনে পান্তা-ইলিশ তো ছিলই, ছিল নানা পদের ভর্তা। রান্না করেছেন মাহিয়া মাহি নিজেই। আর খাবার পরিবেশন করা হয় মাটির বাসনে। মা-বাবা ও স্বামীকে নিয়ে বৈশাখের প্রথম দিন কেটেছে এই ঢালিউড সুন্দরীর।চৈত্রসংক্রান্তিতে বাসায় সহকর্মীদের নিমন্ত্রণ করেছেন মৌসুমী নাগ-শোয়েব দম্পতি।

ঘরোয়া আড্ডায় মৌসুমী নাগ, দীপা খন্দকার, সুবর্ণা মুস্তাফা, তাহমিনা মৌ, রুনা খান ও নীলাঞ্জনা নীলা ছিলেন বেশ ফুরফুরে।ফেসবুকে তারা প্রত্যেকেই তাদের সেই ছবি প্রকাশ করেছেন। যেখানে নানান ধরণের বাঙালী খাবার দেখা গেছে মাটির পাত্রে।অপরদিকে গত ১৩ এপ্রিল বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত ‘একটি সিনেমার গল্প’। সিনেমার প্রচারণায় ১০ এপ্রিল ঢাকা এসেছিলেন ভারতীয় এই অভিনেত্রী। বেশি দিন বাংলাদেশে থাকার কথা ছিল না তার। শুধু বৈশাখ উদ্‌যাপন করতেই এক দিন বেশি থাকলেন বাংলাদেশে।

দিনভর সহকর্মীদের বাসায় নিমন্ত্রণ রক্ষা করেছেন। সন্তানদের নিয়ে ফেরদৌস এসে দেখা করেছেন তার সঙ্গে, হোটেল ওয়েস্টিনে। প্রয়াত নায়ক মান্নার স্ত্রী শেলি মান্নার আমন্ত্রণে বিকেলে গিয়েছিলেন তাঁদের বাসায়, ছিলেন ওমর সানী-মৌসুমীও। সবার সঙ্গে আড্ডা দিয়ে, পান্তা-ইলিশ খেয়ে বিকেলেই চলে যান ভারতে।এছাড়া এবারের পহেলা বৈশাখ একটু ভিন্নভাবে কাটালেন আঁখি আলমগীর। এদিন ফ্রান্সের প্যারিসের ‘প্লেস দে লা রিপাবলিক’-এ গান করেন জনপ্রিয় এই গায়িকা। আঁখির গান শুনতে ছুটে আসে প্র্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এসেছিল ভিনদেশের শ্রোতারাও। নববর্ষ উপলক্ষে আঁখি স্টেজে ওঠেন লাল শাড়ি পরে। বাংলা গানের তালে তালে মাতিয়ে রাখেন উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদের। বৈশাখী ওই শো’র কয়েকটি ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে ক্যাপশনে আঁখি লেখেন, ‘অ্যামেজিং ক্রাউড ইন প্যারিস’।