রশিদকে মারার কারণ জানালেন গেইল

অপবাদ দেয়া হয়েছিল গেইলের বয়স বেড়ে গেছে। অথচ বয়স যার কাছে শুধুই একটি সংখ্যা মাত্র! ক্রিস গেইলকে অবজ্ঞা করলে কী হয়, সেটা নিশ্চয়ই ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরা এখন বুঝতে পারছেন। একাদশ আইপিএলের নিলামে গেলের নামটা যখন উঠেছিল, তখন অবজ্ঞার ছায়া দেখা গিয়েছিল প্রতিটা টেবিলেই।কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব তাকে নিয়েছিল পরে। ন্যূনতম দামে। তবে গেল অপমানিত হলেও বুঝতে দেননি।

জবাব দিয়েছেন ব্যাট হাতে।বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) মোহালিতে এ বারের আইপিএলের প্রথম সেঞ্চুরি করার পরে পুরস্কার নিতে এসে গেইল নিজেই বলেন রশিদ খানকে টার্গেট করেছিলেন তিনি, ‘ বর্তমান সময়ে বিশ্বের বড় বড় বোলারদের মধ্যে রশিদ একজন। সে তার ক্যারিয়ার এবং চলমান আইপিএলে অসাধারণ বল করে আসছে। তাই আমি তাকে চাপে রাখতে চেয়েছিলাম।

তাকে দিয়েই দেখাতে চেয়েছিলাম, দেখ তোমার ওপাশে কিন্তু বস দাঁড়িয়ে।’‘ঝিকে মেরে বৌকে বোঝানো’র মতো তাবড় তাবড় বোলারদের হুশিয়ারিও দিয়েছেন, ‘ বল করার আগে দেখে নিও , উইকেটের ওপাশে কে ব্যাট করছে!’এই অবহেলিত গেইল শুধু বোলারদের নয়, সবাইকে হুমকি দেন। পুরস্কার নিতে এসে হাতটা একবার তুলে বলে গেলেন, ‘‘ক্রিস গেইল নামটা ভুলে যাবেন না! কিছুটা সম্মান দেখান।’’

নামটা কি এর পরে আর কেউ ভুলে যাওয়ার সাহস দেখাবেন? বোধ হয় না। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজের ২১ নম্বর এবং আইপিএলে ছয় নম্বর সেঞ্চুরি করে উঠৈ ‘ইউনিভার্স বস’ বলেন, ‘‘অনেকেই ভেবেছিল, আমি বোধ হয় বুড়ো হয়ে গিয়েছি। অনেকেই বলেছিল, ক্রিসের এবার অনেক কিছু প্রমাণ করার আছে। আমার কিছু প্রমাণ করার নেই। তবে এটুকু বলব, আমাকে দলে নিয়ে আইপিএলকে বাঁচিয়ে দিল বীরেন্দ্র শেবাগ’

’এতেই অবশ্য থেমে থাকেননি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সম্ভবত সব চেয়ে ধ্বংসাত্মক ব্যাটসম্যান। তিনি বলেন, ‘‘কিছু দিন আগে শেবাগ বলেছিল, ক্রিস গেইল যদি দু’টো ম্যাচও জিতিয়ে দিতে পারে, তা হলে ওদের টাকা উসুল হয়ে যাবে। এই নিয়ে এবার আমাকে শেবাগের সঙ্গে কথা বলতে হবে!’’