এবার ইডেনও দেখল গেইল-ঝড়

বৃষ্টিতে ম্যাচ বিঘ্নিত না হয়ে পুরো খেলা হলেও নাইটরা জিতত, একথা তাদের অতি বড় ভক্তও বলতে পারবে না।স্বপ্নভঙ্গ কেকেআর-এর। প্রায় ২০০ রান স্কোরবোর্ডে তুলে ফেলার পরেও ম্যাচে হারতে হল তাদের। বৃষ্টিতে ম্যাচ বিঘ্নিত না হয়ে পুরো খেলা হলেও নাইটরা জিতত, একথা তাদের অতি বড় ভক্তও বলতে পারবে না।

শনিবারের ম্যাচ ছিল রীতিমতো কাঁটায় কাঁটায় টক্কর। কোনও সন্দেহ নেই, নিজেদের প্রমাণের জন্য মুখিয়ে ছিল দুই দলই। দু’দলেরই পয়েন্ট সমান ছিল। যেহেতু তিনটি করে ম্যাচ জিতেছে উভয়ই। যদিও নেট রান রেটে এগিয়ে ছিল কলকাতা।

অধিনায়ক অশ্বিন টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধানত নেন। শুরুতেই পিঞ্চ হিটার নারিন (১) আউট হওয়ার পরে নাইটদের হাল ধরেন ক্রিস লিন (৭৪) ও রবিন উথাপ্পা (৩৪)। ইনিংসের শেষ দিকে অধিনায়ক কার্তিকও (৪৩) ভাল ব্যাট করে নাইটা রাইডার্সকে পৌঁছে দেন ১৯১/৭-এ।

জবাবে শুরু থেকেই ঝড় তোলেন রাহুল-গেইল জুটি। প্রথম পাঁচ বলে চারটি চার মেরে চমকে দেন রাহুল। গেইল তুলনায় সামান্য নিষ্প্রভ ছিলেন গোড়াতে। ক্রমে তিনিও মেজাজে আসেন। ৮.২ ওভারের পরে স্কোর যখন ৯৬ তখনই নামে বৃষ্টি।

বৃষ্টির ধাক্কায় ওভার ও টার্গেট দুই-ই কমে যায়। জেতার জন্য কিংস ইলেভেনকে ১৩ ওভারে করতে হতো ১২৫। তখনই নিশ্চিত হয়ে যায় ম্যাচের ভাগ্য। খেলা শুরু হওয়ার পরে নারিনের বলে পর পর ছক্কা ও চার মেরে দ্রুত ম্যাচ শেষ করতে গিয়ে আউট হন রাহুল। তাঁর ২৭ বলে ৬০ রানের ইনিংসটি ছিল চোখ ধাঁধানো।

এর পর যা বাকি ছিল, তা নেহাতই নিয়ম রক্ষার। গেইলের (৬২) বিশাল ছক্কায় ম্যাচ শেষ হয় বারো নম্বর ওভারের প্রথম বলেই।