এটাই বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাইক!

হার্লে-ডেভিডসন বিশ্বে বাইক নির্মাতাদের মধ্যে অন্যান্য এক প্রতিষ্ঠান। ১৯০৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাইক প্রেমিদের জন্যে একের পর এক অন্যন্য বাইক প্রস্তুত করছে এই প্রতিষ্ঠানটি । এবার হার্লে-ডেভিডসন আনলো বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাইক। বিশ্ব বাজারে যার দাম ১.৭৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা টাকার হিসেবে সাড়ে ১৪ কোটি টাকা। ৯ মে জুরিখে এক অনুষ্ঠানে এ বাইকটিকে প্রকাশ্যে আনল সংস্থাটি।

হার্লে-ডেভিডসনের ব্লু-এডিশন ভার্সন এ বাইকের নাম দেয়া হয়েছে ‘সফটটেল স্লিম এস’। সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত গয়না ও ঘড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা ‘বুশারার’ এবং বাইক প্রস্তুতকারক সংস্থা ‘বান্ডানারবাইক’র যৌথ উদ্যোগে বাইকটি তৈরি করা হয়েছে।

টানা ১ বছর ধরে ২ হাজার ৫০০ ঘণ্টা নানা গবেষণা, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বাইকটির নকশা তৈরি করেছেন ২ সংস্থার ৮ বিশেষজ্ঞ। বাইকটি সাজাতে ৩৬০টি হীরা ব্যবহার করা হয়েছে এই বাইকে। আর স্ক্রুগুলো সবটাই সোনার। বাইকটিতে রয়েছে ৬ রঙের কোটিং। তবে এই প্রস্তুতপ্রণালীটি প্রকাশ করেনি সংস্থাটি।

এর আগে হার্লে-ডেভিডসনের যত মডেল বেরিয়েছে কোনোটিতেই ঘড়ি ছিল না। তবে এইবার ফুয়েল ট্যাংকের ডান পার্শে তারা ঘড়ি সংযুক্ত করেছে। এছাড়া ফুয়েল ট্যাঙ্কের পাশে ৫.৪ ক্যারেটের ডায়মন্ড রিং লাগানো রয়েছে। ফুয়েল ট্যাঙ্কের একপাশে ঘড়ি ও অন্যপাশে হীরেখচিত রিং।

সংস্থাটি আশা করছে বাইকটি বাজারে প্রবেশ করলে ক্রেতাদের কাছ থেকে ভাল সারা তারা পাবেন।