যৌনতায় সঙ্গীর আগ্রহ ফেরানোর কৌশল

দীর্ঘদিন একছাদের নীচে থাকার পর ফিকে হয়ে গেছে দাম্পত্যসুখ? এতদিনের সঙ্গীর প্রতি আকর্ষণ বোধ করছেন না আর? আর তাই যৌনজীবনেও সময়ের আগেই এসেছে ভাটা? এমন সমস্যা নিয়ে অনেকেই নিরানন্দ জীবন কাটালেও এরও আছে সহজ কিছু সমাধান।

গবেষণায় দেখা গেছে, শতকরা ১৫ ভাগ পুরুষ এবং ৩৪ ভাগ নারী যৌনতায় আগ্রহী নন। দুজন সঙ্গীর ভেতর একজন যৌনতায় আগ্রহী নন এমন সমস্যা নিয়েই বেশিরভাগ সময়ে চিকিৎসকের কাছে শরণাপন্ন হয় মানুষ।

যৌন ইচ্ছা দমে যেতে পারে যেকোন কারণেই। অনেকেই দীর্ঘদিন একই সঙ্গীর সঙ্গে থাকাকে যৌন ইচ্ছা কমে যাবার কারণ হিসাবে দেখান। অবশ্যই যৌনতায় অনাসক্তির জন্য যৌনশক্তি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, তবে যৌনতায় মানুষের অনাগ্রহ আসে আরো অনেকগুলো ভিন্ন কারণে।

মার্কিন সেক্স থেরাপিস্ট ডেবরা ফক্স এব্যাপারে বলেন, অনীহা এবং পারদর্শীতা নিয়ে সংকোচের কারণে অনেক পুরুষ যৌনতায় অনাগ্রহ দেখান। অনেক সময় দ্রুত বীর্যপাত এবং জননাঙ্গ উত্থিত না হবার ভয় থেকেও পুরুষেরা যৌনতা এড়িয়ে চলেন।

তিনি আরো বলেন, নারীদের ক্ষেত্রেও অনেকসময় যৌনতা নিয়ে আগ্রহে খরা দেখা যায়। যৌনতায় অনাগ্রহের আরো কিছু কারণ হিসেবে ফক্স পর্নোগ্রাফিতে আসক্তির কথাও বলেন। কিন্তু এর সমাধান কী? সিএনএনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বাতলে দেওয়া হলো কয়েকটি উপায়।

সঙ্গীর সঙ্গে ঘ্যানঘ্যান নয়
মনে রাখতে হবে সঙ্গীর আকর্ষণ ফিরে পাবার জন্য তার ভালোমন্দ জিজ্ঞাসা করার দায়িত্বও নিতে হবে। মনে রাখা ভালো, অনাগ্রহী সঙ্গীকে রাজী করানোর জন্য ‘তুমি কেন আগ্রহী না’-এর চেয়ে ‘আমরা তো অনেকদিন মিলিত হই না’ অনেক ভালো বাক্য।

নতুন অভ্যাস তৈরি
মার্কিন গাইনোকোলজিস্ট টেরি ভেন্ডারলিন্ডে জানান, প্রতি সপ্তাহে দুইদিন দুই ঘণ্টা একত্রে কাটানো দম্পতিদের শারিরীক সম্পর্কের জন্য ভালো। এর ফলে নিজেদের মধ্যে যৌনতা ছাড়াও ভালোবাসার স্পর্শের সুযোগ আসবে। এই সময়টাতে একত্রে বই পড়তে পারেন, কিংবা পছন্দের কোনো সিনেমাও দেখা যেতে পারে। বিশেষ এই সময়ে নিজের মনের গোপন বাসনাকে প্রকাশ করতে পারেন দুজনই।

মিলনই যেন প্রধান উদ্দেশ্য না হয়
বেশিরভাগ মানুষের কাছেই যৌনকর্মই যৌনতার প্রধান শর্ত। তবে এটি ছাড়াও যৌনতার আরও অনেক উপযোগিতা আছে।মিলনের সময় শরীরের দাবির প্রতি নজর দেওয়া ছাড়াও সঙ্গীর মানসিক অবস্থার প্রতি খেয়াল রাখুন। তাকে বুঝতে দিন, আবেগের দিক থেকেও তার পাশে আছেন আপনি। এতে মিলনের আনন্দ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভালোবাসার বন্ধনও দৃঢ় হয় বলে মন্তব্য করেছেন সেক্স থেরাপিস্ট র‍্যাচেল নিডেল।

যৌনতার ইচ্ছাকে গুরুত্ব দিন
এটি সত্যি যে অনেকদিনের সম্পর্কে একসময় যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যেতে পারে। র‍্যাচেল নিডেল এবিষয়ে বলেন, মাঝেমধ্যে নিবিষ্ট মনে আগ্রহ না থাকলেও শারিরীক সম্পর্কের ইচ্ছা আনার চেষ্টা করতে হবে। মনে রাখতে হবে দুজনের একজনের যদি আগ্রহ থাকে এবং অপরের যদি আগ্রহ না থাকে তবে যার আগ্রহ আছে তাকে তার নিজের ইচ্ছাশক্তিকে গুরুত্ব দিতে হবে। কেননা আগ্রহ ছাড়া যৌনতা সম্ভব নয়। তাই হাল ছেড়ে দেয়ার বদলে নিজের চেষ্টাগুলোতে মনোযোগ দিলেই সফলতা মিলবে।