চুলের যত্নে দইয়ের ৪টি প্যাক

দই খাওয়ার পাশাপাশি চুলের পরিচর্যাতেও ব্যবহার করা হয়। বিভিন্ন চুলের প্যাক ব্যবহার করা হলেও দইয়ের প্যাক চুলের জন্য বেশ কার্যকরী। তাই চুলের স্বাস্থ্যতা রক্ষার্থে দইয়ের এই চারটি প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

১) চুলের খুশকি দূর করে

উপকরণ : এক কাপ দই, পাঁচ চামচ মেথি গুড়ো, এক চামচ লেবুর রস।

প্রণালি : এই তিনটি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে চুলে মাস্ক হিসেবে লাগিয়ে নিন। এই মাস্ক লাগিয়ে ৪০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর একটা হার্বাল শ্যাম্পু কিংবা কোন ব্যান্ডের শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে দুই দিন করুন এক মাসের জন্য তারপর দেখবেন আপনার চুলের জাদু।

২) দই চুলে চমক এনে দেয়

দূষণ ও ঘাম বেড়ে যাওয়ার জন্য আজকাল চুলের চমক কম দেখা যায়। তাই চুলের চমক ফিরিয়ে আনার জন্য ব্যাবহার করুন এই মাস্কটি।

উপকরণ : এক কাপ দই, কয়েকটি জবা ফূল, কিছু নিম পাতা, অর্ধেক কমলার রস।

প্রণালি : এবার এইসব একসঙ্গে পিষে একটা ভালো পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার এই পেস্টটা চুলে দিয়ে আধা ঘন্টা রেখে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

৩) দই চুল মজবুত করে

দই মাথার তালু ঠান্ডা রেখে চুলের স্বাস্থ্য যোগান দেয়। তাই চুলকে মজবুত করতে এই মাস্কটি ব্যাবহার করুন।

উপকরণ : এক কাপ দই, একটা ডিম, দুই চামচ জলপাইয়ের তেল, তিন চামচ ঘৃতকুমারী জেল, দুই চামচ তুলসী পাতা, দুই চামচ কারি পাতা।

প্রণালি : সকল উপকরণ এক জায়গায় মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করেন। পেস্টটি চুলে ভালো করে গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত লাগান। এক ঘন্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলুন।

৪) দই চুলকে সিল্কি করে

টক দই ও অ্যালোভেরা এই দুটো অসাধারণ কাজ করে চুলকে সিল্কি বানাতে। অ্যালোভেরা চুলের পিএইচ লেবেলকে উন্নত করে,যেটা সুন্দর চুলের প্রথম শর্ত। অর্থাৎ এই প্যাক শুধু চুলকে সিল্কি করবে না, চুলের গ্রোথও বাড়াবে।

উপকরণ : অ্যালোভেরা জেল এক চামচ, টক দই চার চামচ ও একটু নারকেল তেল।

প্রণালি : টক দই ভালো করে ফেটিয়ে নিন। এবার এতে অ্যালোভেরা জেল দিন। আর দিন কয়েক ফোঁটা নারকেল তেল। ভালো করে মেশান। এবার এই ঘন পেস্টটা চুলে লাগান। ২০ মিনিট রাখুন। তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন করলেই হবে। এটা চুলকে ময়েশ্চারাইজড করবে। নিমেষেই আপনার প্রাণহীন চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে।

সূত্র : এনডিটিভি।