প্রেমে পড়লে এই ৫টি পরিবর্তন আসে শরীরে, ৩ নাম্বারটা জানলে অবাক হবেন

প্রেমে পড়েননি, এরকম মানুষ খুবই কম। জীবনকালের কোনো না কোনো সময় মানুষ কারো না কারো প্রেমে পরেই যায়। তা এক্তরফাই হোক বা দুজনের সম্মতিতেই হোক। প্রেমে পড়ার সময় যে অদ্ভুত এক ভালোলাগার অনুভূতি জাগে তার স্বাদ সকলেই নিতে চান। ফলে প্রেমে পড়লে যে জীবনে কিছুনা কিছু পরিবর্তন আসে তা সকলেরই জানা। কিন্তু জানেন কি? জীবনের সাথে সাথে আমাদের শরীরেও অনেক পরিবর্তন আসে।

১. মস্তিষ্কের কার্যকলাপ বদলে যায়: প্রেমে পড়লে তা নাকি মস্তিষ্কের ১২ টি জায়গায় আঘাত করে। সুতরাং, সেই কারণেই প্রেমে পড়লে মস্তিষ্কের কার্যকলাপে কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। এই সময় অনেক বিষয়ই আবেগ দ্বারা অনুভূত হয়। ব্রেন ও মনের ভাবনাচিন্তার মধ্যে চলে দ্বন্দ্ব।

২. হৃদস্পন্দনের গতি পরিবর্তন: প্রেমে পড়লে শরীরে হর্মনেরও পরিবর্তন ঘটে। এই কারণে রক্তচাপও কমে আসে। আর সেই সঙ্গে কমে যায় হৃদস্পন্দনের গতিও। ভালোবাসার মানুষটি কাছাকাছি থাকলে এই বিশেষ পরিবর্তনটি পরিলক্ষিত হয় বেশি।

৩.দেহের যন্ত্রনা কমে যায়: প্রেমে পড়লে মানবদেহের বিচ্চিন্ন ব্যাথা বেদনা কমে যায়। মন পরে থাকে প্রিয় মানুষটির দিকে। প্রেমানুভুতির দ্বারা মস্তিষ্কের নিউরাল রিসেপ্টরের ক্ষমতা বেড়ে যায় যা দেহের যন্ত্রণাকে কমাতে সাহায্য করে।
স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের গবেষণায় জানা যায় এই তথ্যটি। তাই ভালোবাসাকে ব্যাথার ওষুধও বলা চলে।

৪. অন্যমনস্ক এবং ভুলোমনা হয়ে পড়া: প্রেমে পড়লে অধিকাংশ সময়ই মানুষের মন পরে থাকে প্রিয় মানুষটির দিকে। ফলে কাজে অনেক সময় মন সম্ভব হয়ে ওঠেনা। এর জন্য অক্সিটোসিন হরমোন অনেকাংশেই দায়ী। প্রেমে পড়লে মস্তিষ্কে এই হরমোন প্রচুর পরিমানে উৎপন্ন হয় ফলে তা স্মৃশক্তিকে কমিয়ে দেয়,।

৫. ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে: গবেষণায় দেখা গেছে প্রেমে পড়লে মানুষের স্বাভাবিক ঘুম থেকে প্রায় ১ ঘন্টা সময় ঘুম কম হয়। জার্নাল অফ অ্যাডোলেসেন্ট হেলথে বলা হয় রাত্রে ঘুমোতে গেলেই প্রিয় মানুষটির কথা বেশি বেশি মাথায় আসে এবং এর ফলে দৈহিক ও মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধিপায়। ফলে ঘুমের জন্য ঠিকমতো প্রস্তুত হতে পারেনা শরীর. ব্যাঘাত ঘটে ঘুমে।