চঞ্চলের পেটু নিয়ে মজা করলেন খুশি

জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। গ্রামীণ বা শহুরে, বিভিন্ন রকমের চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে নিজের দক্ষতা প্রকাশ করেছেন তিনি। সহজ-সরল ও সাদাসিধে জীবন-যাপন করতে ভালোবাসেন এই অভিনেতা। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট হওয়া একটি ছবি চঞ্চল ভক্তদের নজরে এসেছে।

যদিও ছবিটি অনেক আগে তোলা।ছবিতে লুঙ্গির সঙ্গে কোমরে গামছা বেঁধে নাট্যকার বৃন্দাবন দাস ও তার যমজ সন্তানদের সঙ্গে হাস্যউজ্জল চঞ্চলকে দেখা গেছে। এটি নিজের ফেসবুকে পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী শাহানাজ খুশি।জানা গেছে, পদ্মা নদীতে গোসল করতে নামার সময় তাদেরকে ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দী করেন খুশি।

চঞ্চল সহ সবাই বেশ খুশি মনে ক্যামেরার সামনে পোজ দেন। সেই ছবি খুশি তার ফেসবুকে পোস্ট করে ট্যাগ করেন চঞ্চলকেও।

ছবিটিতে তিনি অভিনেতাকে উদ্দেশ্য করে ক্যাপশনে লেখেন, ‘পদ্মা নদীতে গোসল করতে নামার সময়। মানুষের জীবনের বড় ট্র্যাজিডি সব সুখ-দু:খের জীবন্ত সময়গুলা পর মুহূর্তেই স্মৃতি হয়ে যায়। একটা কথা, এখন আর কারোই পেটু নাই, সবাই ওজন কমায় ফেলছে।’

এর প্রতি উত্তরে চঞ্চল অভিনেত্রী খুশিকে বলেন, ‘আমার পেটু তো কমে নাই বন্ধু।’

উল্লেখ্য, গত রবিবার সেরা অভিনেতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬ গ্রহণ করেছেন চঞ্চল চৌধুরী। আয়নাবাজিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য তাকে সেরা অভিনেতা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। চঞ্চলের এই প্রাপ্তিতে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভক্তসহ সহকর্মীদের অনেকেই। সবার মত প্রিয় মানুষটিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দীর্ঘদিনের বন্ধু অভিনেত্রী শাহানাজ খুশিও। তিনি তার ফেসবুকে লিখেছেন- ‘অভিনন্দন বন্ধু। শুধু ২০১৬ তে নয়, প্রতি বছর তোমার হাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার আসুক ..।’

প্রসঙ্গত, বন্ধুর এই প্রাপ্তিতে বেশ আনন্দিত অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি। কারণ চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে তার এবং তার পরিবারের সবার একটি গভীর সম্পর্ক রয়েছে। যে সম্পর্ক শুধুই আত্মার, বন্ধুত্বের। যার সূত্র ধরেই স্মৃতির পাতা থেকে এই ছবিটি প্রকাশ করেছেন খুশি।