কম খরচে ঘুরে আসুন আকর্ষণীয় ৫ দেশ

বিদেশ ভ্রমণে আগ্রহ সব মানুষেরই আছে। সুন্দর সুন্দর দেশ ঘুরে বেড়ানো, প্রকৃতি স্বাদ গ্রহণ কে না চায়। তবে খরচের ভয়ে অনেকেরই আগ্রহ কমে যায়। তাদের জন্য এই প্রতিবেদন। ঘুরুন মন খুলে, কম খরচে।

রোমানিয়া-
রোমানিয়া হল সেই স্থান যেখানে বাস্তবতা এবং রূপকথার মিলন হয়। ভ্রমণ করে আবিষ্কার করার মতো অনেক কিছুই আছে এখানে, যেমন স্কারিসোয়ারা গুহা, আস্ট্রা পার্ক, দ্য ট্রান্সফ্যাগারাসান রোড, পেলেস ক্যাসেল, দ্য মেরি সিমেট্রি, মাড ভলকানোস এবং আরও অনেক কিছু!

যখন এখানে ছিসিনাউ থেকে প্লেন বা গাড়িতে করে আসবেন আপনি বিস্মিত হবেন স্থানটির জমকালো দৃশ্য, ছবিতুল্য স্থাপত্য এবং সামর্থযোগ্য দাম দেখে। বাসস্থানের ক্ষেত্রে এই সুযোগসুবিধাগুলো নির্ভর করবে আপনি কোন শহরে ঘুরতে যাচ্ছেন তার উপর। হোস্টেলগুলোতে ভাড়া শুরু হয় ৬ ইউরো থেকে এবং হোটেল শুরু হয় ১১ ইউরো থেকে। আপনি চাইলে সমুদ্রের কাছাকাছি কোনো ছোট বাংলোতেও থাকতে পারেন ৮ ইউরো দিয়ে।

বাইরের ক্যাফেগুলোতে আপনি মজাদার মুখরোচক খাবারের পাশাপাশি অন্যান্য সাধারণ খাবারও খেতে পারবেন যা কিনতে আপনার ৩ থেকে ৫ ইউরোর বেশি খরচ হবে না। আর যদি আপনি দুধ, রুটি, চাল, চিকেন ব্রেস্ট এবং চিজ বা পনির খেতে চান তবে আপনাকে খরচ করতে হবে ৯ থেকে ১১ ইউরো। পাবলিক ট্রান্সপোর্টের জন্য এখানে খরচ পড়বে ০.৩৪ ইউরো এবং একদিনের জন্য পাতাল রেলের পাসের খরচ পড়বে ১.১০ ইউরো।

লাওস-
এই দেশটি অদ্ভুত সুন্দর হওয়ার কারণে খুবই পরিচিত। এটা তাদের জন্য দারুণ একটি সুযোগ যারা সাধ্যের মধ্যে বকেউ জঙ্গল, বলাভেন প্লাতেউ এবং চিত্রানুগ নদী, পাহাড় এবং ঝর্ণা দেখে ইকো ট্যুর দিতে চান। উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করা যেতে পারে, ভাং ভেইংয়ের গুহায় যাওয়ার পথে ৮ ঘণ্টার কায়াকিং জার্নি করতে আপনার খরচ হবে ৯.৫০ ইউরো।

আর খুব সহজেই আপনি সেখানে হোস্টেল খুঁজে পাবেন ৪ ইউরোর মধ্যে এবং হোটেলও পাবেন ৪ ইউরোতে। তাদের খাবারের তালিকাও ভিন্ন। যেমন মাংসের সাথে আলু ভাজার দাম পড়বে ২ ইউরো, চিংড়ির স্যুপ পাওয়া যাবে ৩ ইউরোতে, দই ০.৫০ ইউরো, দেড় কেজি কলা ০.৫০ ইউরো। শহরের ভেতরে বাসের খরচ পড়বে ৪ থেকে ২০ ইউরোর মধ্যে, বাইক একদিনের জন্য পাওয়া যাবে ৬ ইউরোতে অথবা আপনি সারাদিনের জন্য ১.৫০ ইউরোতে একটি বাইসাইকেল ভাড়া করে নিতে পারেন খুব সহজে।

পর্তুগাল-
জমকালো এই পর্তুগালে সবকিছুই সম্ভব যা আপনি করতে চান। যেমন সমুদ্রের পাড়ে একান্তে পায়চারি করা, মাদেইরাতে ঘোড়ার পিঠে চড়া, আল্টো দউরোতে ওয়াইন টেস্ট করা, গর্জিয়াস পেনা প্যালেস, আযোরতে তিমি মাছের সাথে সাক্ষাৎ, এবং আরো অনেক কিছু! আপনি এখানে হোস্টেল ভাড়া নিতে পারবেন ৮ ইউরো দিয়ে, হোটেল রুম নিতে পারবেন ১৬ ইউরো দিয়ে অথবা সমুদ্রের কাছে যেকোনো ঘরও নিতে পারেন।

এ জায়গার সবচেয়ে জনপ্রিয় খাবার বা ডিশ বিশালাকারের সামুদ্রিক কড মাছের সাথে সবজি পাবেন ৩ বা ৪ ইউরোতে, গ্রিল্ড ফিস দিয়ে গরম রুটি ২ ইউরো মাত্র। ক্যাফেগুলোতে ২ জনের খাবার খাওয়া যাবে ১১ ইউরোর মধ্যেই। আপনি নিজেও দারুণ খাবার তৈরি করে নিতে পারবেন যদি আপনি মাছ বা মুরগি ( ৭ ইউরো), চিংড়ি( ৯ থেকে ১১ ইউরো), ঝিনুক (২.৫০ ইউরো), পনির (৫ ইউরো) এবং ফল (২ ইউরো থেকে শুরু) কিনে নেন।

আপনি যদি লিসবন জাদুঘর ঘুরে বেড়াতে চান তাও আবার ফ্রিতে, কেনাকাটায় ডিসউন্টসহ ট্রান্সপোর্টের খরচটাও এড়িয়ে চলতে চান তবে আপনি কিনে নিতে পারেন লিসবো কার্ড।

বুলগেরিয়া-
বুলগেরিয়া আপনার জন্যই অপেক্ষা করছে এর সমুদ্রতীরবর্তী রিসোর্টগুলো পরিদর্শন করানোর জন্য যেমন গোল্ডেন স্যান্ডস, নেসেবার, সোযোপোল, সানি বিচ এবং আরও অনেক কিছু! আপনি অনুপ্রাণিত হবেন সেভেন রিলা লেকস, দ্য বেলোগ্র্যাডচিক রক্স, দ্য রোজ ভ্যালী এবং দ্য ওল্ড মেলনিক দর্শন করলে।

হোটেলগুলো এখানে মোটামুটি সস্তা, ভাড়া শুরু হয় ৭ ইউরো থেকে। আপনি যদি সমুদ্রের কাছাকাছি কোনো হোটেলে থাকতে চান তবে এসব হোটেলের দাম শুরু হবে ৮ ইউরো থেকে। তবে রাজধানীতে হোটেলের ভাড়া গুণতে হবে ১৫ ইউরো এবং বাংলোগুলোর খরচ পড়বে ১২ ইউরো করে।

রেস্টুরেন্টে ভোজন করতে চাইলে খরচ পড়বে ৪ ইউরো, ক্যাফেগুলোতে খেতে ১.৫০ ইউরো এবং মেহানাতে ২ জন লাঞ্চ করতে খরচ পড়বে ১০ ইউরো। পাবলিক ট্রান্সপোর্টে খরচ পড়বে ০.৫১ ইউরো এবং ৩.৫০ ইউরো খরচ হবে শহরের ভেতরে।

পোল্যান্ড-
পোল্যান্ড আপনাকে এর চমৎকার রাজধানী অনুসন্ধান করার সুযোগ দেবে, তাছাড়া মালবোর্ক প্রাসাদ দেখা, টাট্রাস পর্বতের উঁচু থেকে বিস্ময়কর সৌন্দর্য দেখা এবং গর্জিয়াস স্কি রিসোর্টে উপভোগ করা। পোল্যান্ড সবসময় খুব কম টাকার সুবিধাটি আপনাকে দেবে।

হোস্টেলগুলো প্রায়ই তাদের ভাড়ার উপর ডিসকাউন্ট বা ছাড় দিয়ে থাকে । ভাড়া শুরু হয় ৭ ইউরো থেকে এবং ক্রাকোতে দুইজনের জন্য মোটামুটি মানের রুম পাওয়া যাবে ২১ ইউরোতে ও রোক্লাওতে ১৭ থেকে ২১ ইউরোর মধ্যে পাওয়া যাবে। আপনি যদি দুধ, রুটি, ডিম, চাল, আলু, পেয়াজ, চিকেন ব্রেস্ট এবং ওয়াইন কিনতে চান তবে এসব আপনি পাবেন ১১ ইউরোর মধ্যে।

এক কাপ ক্যাপাচিনো অথবা এক গ্লাস বিয়ার এর দাম পড়বে ১.৬০ ইউরো। ক্যাফেতে খাবার খেতে চাইলে সেখানে আপনি তা ৪ থেকে ৬ ইউরোর মধ্যেই কিনতে পারবেন। আর ট্রান্সপোর্টের ক্ষেত্রে পরামর্শ হলো, ১ বা ২ দিনের মেয়াদ নিয়ে স্কাই ক্যাশ বা কলপে ওয়েবসাইটে ইউরো দিয়ে ট্রাভেল পাস কিনে ফেললেই ভালো হবে।