সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের তালিকা দিন, বিচার করব : কাদের

নিরাপদ সড়ক দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় সাংবাদিকদের ওপর হামলায় জড়িতদের তালিকাসহ প্রমাণ চেয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সাংবাদিকদের ওপর হামলা যদি কোনো ছাত্রলীগকর্মী করে থাকে তার তালিকাসহ প্রমাণ দিন। আমি বিচার করব। আপনি আমাকে বলেন, ছাত্রলীগের কারা কারা জড়িত। আপনি আমাকে তালিকা দিন।’

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের একটি পেপার কাটিং দেখান ওবায়দুল কাদের। যেখানে দুজন যুবককে আন্দোলনে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে চিহ্নিত করেন তিনি। এর মধ্যে একজন ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেও জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের ছবি দেখিয়ে বলেন, ‘সাংবাদিকদের ওপর হামলায় এই লোকগুলোও তো জড়িত থাকতে পারে।’

নিরাপদ সড়ক দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে উদ্ভুত পরিস্থিতি এই মুহুর্তে নিয়ন্ত্রণে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে, শিক্ষকদের কথা শুনে শিক্ষার্থীরা ঘরে ফিরতে শুরু করেছে। এই মুহূর্তে কোনো আন্দোলনকারী নেই।’

আন্দোলনে অনুপ্রবেশ ঘটেছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যখনই মির্জা ফখরুল, আমির খসরুর উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রকাশ্যে সমর্থন করেছেন তখনই এটা দিবালোকের মত সত্য হয়েছে যে- নিজেদের স্বার্থে ছাত্রছাত্রীদের অরাজনৈতিক আন্দোলনের মধ্যে অনুপ্রবেশ ঘটিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে বিএনপি। সরকার হঠানোর আন্দোলন করছে। এটা এখন ক্রিস্টাল ক্লিয়ার।’

এ সময় একটি ছবি দেখিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘গতকালকের যে আন্দোলন, এটা ছাত্রছাত্রীদের ছিল না। আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর আহ্বানটি সারাদেশে সিক্রেটলি প্রচার করেছে। তারা এ কারণে সারাদেশ থেকে বিএনপি-জামায়াতের ক্যাডাররা ঢাকায় আসে। তাদের ক্যাডাররা অস্ত্র নিয়ে শাহবাগ থেকে সাইন্সল্যাব পর্যন্ত, সাইন্সল্যাব থেকে বিজিবি গেট পর্যন্ত আওয়ামী লীগ অফিস টার্গেট করে এসেছিল।’

‘সাধারণ শিক্ষার্থীরা অস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নেমেছে’ নিজে এমনটা বিশ্বাস করেন না জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই। আওয়ামী লীগের অফিসে হামলা করার কোনো এজেন্ডা নেই। এই এজেন্ডা তাদের, যারা এই আন্দোলনের ওপর ভর করে তাদের রাজনৈতিক দাবা খেলায় মেতে উঠেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন-আওয়ামী লীগ নেতা ড. আবদুর রাজ্জাক, দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমদ হোসেন, একেএম এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবদুস সোবহান গোলাপ, ফরিদুন্নাহার লাইলী, হাবিবুর রহমান সিরাজ, অসীম কুমার উকিল, সুজিত রায় নন্দী, আবদুস সবুর, দেলোয়ার হোসেন, শামসুন্নাহার চাঁপা, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিপ্লব বড়ুয়া, মারুফা আক্তার পপি, গোলাম রাব্বানী চিনু, ইকবাল হোসেন অপু প্রমুখ।