জেনে নিন সুখী জীবন যাপনের অজানা মূলমন্ত্র !

আমরা সকলেই চাই সুখী এবং সুন্দর জীবন। আমাদের সব ধরণের কাজ এবং পরিশ্রমের মূল লক্ষ্য হচ্ছে জীবনটাকে সাজিয়ে গুছিয়ে সুন্দর করে তোলা। কিন্তু সব সময় তো আর জীবনে সুখ থাকে না। কারণ সুখ-দুঃখ সব মিলিয়েই জীবন। এরপরও আমাদের নিজেদের কিছু কাজের কারণে আমাদের জীবন থেকে হারিয়ে যায় সুখ।

মনের অজান্তেই ভাবনায় ঠাই দিয়ে থাকি ভীষণ ভুল কিছু ধারণা এবং করে থাকি ভুল কিছু কাজ। এবং এই সব কাজগুলোর কারণেই জীবনটাকে সাজিয়ে তুলতে পারি না আমরা। তাই আমাদের নিজেদের স্বার্থে, জীবনটাকে সুখী এবং সুন্দর করতে এই ধরণের কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকতে হবে আমাদের। তাহলে জেনে নিন সুখী জীবন যাপনের কিছু মূলমন্ত্র।

অন্যের মধ্যে নিজের খুশি ধরে রাখবেন না
আমরা অনেকেই নিজের খুশিটাকে অন্যের মধ্যে খুঁজে থাকি। এই কাজটি আমাদের অনেক বড় ক্ষতি করে। আপনি আপনার নিজের খুশির জন্য অন্য কারো ওপর নির্ভরশীল থাকলে আপনার নিজেরই ক্ষতি। সে আপনার যত আপনই হোক না কেন, আপনার খুশির সাথে তাকে জড়িয়ে ফেলার অর্থ আপনার জীবনের সকল সুখ ধ্বংস করে দেবার অস্ত্র তার হাতে তুলে দেয়া। নিজেকে সুখী রাখতে চাইলে বন্ধ করুন অন্যের মধ্যে নিজের খুশি খোঁজা। নিজের খুশি নিজের হাতে রাখুন।

সব সময় নিজের ভাগ্যকে দোষারোপ করবেন না
অনেকে আছেন কোনো কিছু হলেই নিজের ভাগ্যকে দোষ দিয়ে থাকেন। এবং সব সময় নিজেকে একজন খারাপ ঘটনার শিকার ভাবেন। । এতে করে আপনি ক্ষতি করছেন আপনার নিজেরই। মানুষ নিজের ভাগ্য নিজে গড়ে নিতে পারেন। আপনি যদি নিজেকে সব সময় একজন ‘ভিক্টিম’ হিসেবে দেখে নিজের ভাগ্যকে দোষ দিয়ে চুপচাপ বসে থাকেন তাহলে তো জীবনকে সুখী এবং সুন্দর করতে পারবেন না। নিজের ভাগ্যকে পরিবর্তনের জন্য কাজ করতে হবে।

অন্য একজন মানুষের চিন্তা ভাবনা জোর করে পরিবর্তন করার চেষ্টা করবেন না
প্রত্যেকটি মানুষ আলাদা সত্ত্বা এবং আলাদা চিন্তা ভাবনার অধিকারী। এবং প্রত্যেকেই নিজের মত করে চিন্তা ভাবনা করে জীবনটাকে সাজিয়ে নিতে চান। আপনি যদি অন্য কারো চিন্তা ভাবনার পরিবর্তন করতে চান এতে আপনার কোন লাভই হবে না। বরং আপনি নিজেরই আটকে যাবেন বিষণ্ণতায়। কারণ খুব দ্রুত এবং সহজে কারো দীর্ঘদিনের লালিত চিন্তা ভাবনা পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। তাই সব কিছু সময়ের হাতে ছেড়ে দিয়ে আপনি আপনার মতো থাকার চেষ্টা করুন।

অতীত দিয়ে ভবিষ্যতকে পরিমাপ করবেন না
সব চাইতে বড় ভুল কাজটি যেটা আমরা করি তা হলো অতীতের কিছু ঘটনা দিয়ে নিজেদের ভবিষ্যৎ পরিমাপ করে ফেলা। হয়তো অতীতে কোন দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিলেন, সেটা সব সময় মনে করে ভবিষ্যতেও এরকম হতে পারে বলে অনেক কিছু থেকে দূরে থাকেন অনেকেই। কিন্তু এটি ঠিক নয়। কারণ আপনি অতীতে যখন দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিলেন সেটা ছিল অজানা কিছু, কিন্তু আপনি যদি ভবিষ্যতেও এমন কিছুর শিকার হওয়ার ভয় পান এর অর্থ আপনি অতীত থেকে কোনো কিছুই শিখতে পারেন নি। অতীত থকে শিক্ষা নিন, ভয় নয়।

নিজের মনকে কষ্ট দেবেন না
অনেকেই আছেন যারা মনের ভেতর কষ্ট পুষে রাখেন। এই কাজটি মনের সুখ শান্তি সব কিছু নষ্ট করে দেয়। মনে পুষে রাখা কষ্ট সব সময় এমনকি সুখের সময়টাকেও দুঃখে পরিনত করার ক্ষমতা রাখে। তাই কষ্ট এবং রাগ এই ধরণের ক্ষতিকর অনুভূতিগুলো পুষে রাখবেন না। এতে সুন্দর করে তুলতে পারবেন নিজের জীবন।