চুলের রং বেশিদিন ধরে রাখতে এগুলো মেনে চলুন

গ্লোবাল কালারিং হোক বা হাইলাইট, চুল রং করার পর মূলত দুটো সমস্যায় প্রায় সকলেই ভোগেন । এক, রং বেশিদিন না থাকা, দুই, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া । বিশেষ করে ড্রাই চুলের অধিকারীরা এই সমস্যায় বেশি ভোগেন । চুলের রং বেশিদিন ধরে রাখতে এগুলো মেনে চলুন । এতে রং বেশিদিন থাকবে ।

চুল গ্লোবাল কালার বা হাইলাইট করার পর প্রথম বার শ্যাম্পু করার আগে অন্তত ৭২ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন । এই সময়ের মধ্যে আমাদের চুলের কিউটিকল বুজে যায় । যার ফলে রং ধরে ভাল । এরপরেও রং করা চুলে দুবার শ্যাম্পু করার মাঝে অন্তত ৩ দিনের পার্থক্য যেন থাকে । ঘনঘন শ্যাম্পু করলে চুলের রং যেমন উঠে যায়, তেমনই শ্যাম্পু চুলের গোড়ার তৈলাক্ত ভাব শুষে নেয় । ফলে চুল রুক্ষ হয়ে যায় ।

রং করা চুলের জন্য বিশেষ শ্যাম্পু পাওয়া যায় । শ্যাম্পু কেনার সময় দেখে নিন ‘ফর কালার্ড হেয়ার’ লেখা রয়েছে কিনা, অথবা সালফার-ফ্রি শ্যাম্পু বেছে নিন । চুল ধোওয়ার সময়ও ফিল্টার্ড জল ব্যবহার করা ভাল । জলের ক্লোরিন ও মিনারেল চুলের রং হালকা করে দেয় । গরম জলে চুল ধোওয়া এড়য়ে চলুন । গরম জল চুলের গোড়ার কিউটিকল খুলে দেয় । ফলে চুল আর্দ্রতা হারায় ও রং উঠে যায় ।

সাধারণ ভাবে শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার লাগানোর নিয়ম । কিন্তু চুলের রং যদি বেশিদিন ধরে রাখতে চান তাহলে কন্ডিশনার লাগানোর পর শ্যাম্পু করুন । প্রথমে কন্ডিশনার লাগিয়ে চুল ধুয়ে নিন, তারপর শ্যাম্পু করে আবার ধুয়ে নিন চুল ।

রোদ লাগলে রং তাড়াতাড়ি উঠে যায় । বাইরে বেরনোর সময় তাই হ্যাট বা ব্যান্ডানা পরে নিন । সুইমিং পুলে নামার সময় নারকেল তেল লাগিয়ে নিন চুলে । যত কম সম্ভব হিট স্টাইলিং করুন । চুল সেট করতে হলে লো হিট ব্যবহারের চেষ্টা করুন ।

ব্যালেজ বা ওম্বর কালার শেড ব্যবহার করুন । এই শেডগুলো চুলের ন্যাচারাল গ্রোথ প্যাটার্নের সঙ্গে খাপ খেয়ে যায় । অর্থাত্, চুল বড় হতে শুরু করলেও জেল্লা কমবে না।