মাথাব্যাথার আরেক নাম ছিল বিপিএল !

সম্পন্ন হল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহার জানাজার নামাজ। শুক্রবার এশার নামাজের পরে বিসিবির একাডেমী মাঠে অনুষ্ঠিত হয় তাঁর জানাজা।

যেখানে জীবনের অনেক লম্বা সময় কাটিয়েছেন সেই কর্মস্থলে তাঁকে শেষবারের মতো সম্মান জানাতে ভিড় করেছেন তাঁর ভক্ত অনুরাগীসহ বিসিবির সকল পর্যায়ের কর্মকর্তারা। এছাড়া সাধারণ মানুষও শরিক হয়েছেন তাঁর জানাজায়।

তাঁকে নিয়ে কথা বলার সময় আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। পাপনের কথা থেকে জানা যায়, বিসিবির বিভিন্ন সমস্যাকে নিজের মতো মনে করে সমাধান করতেন সিনহা। নামাজের ঠিক আগে বিসিবি প্রধান জানান,

‘বিসিবির ফাইনান্স কমিটিতে আমাদের অনেক সমস্যা ছিল। তিনি এটার হেড হয়ে সমাধান করেছেন অর্থনৈতিক সব সমস্যা। বিপিএল বিসিবির বড় মাথা ব্যথা ছিল। উনি আসলেন, আর কি সুন্দর করে বিপিএল টাকে দুই বছরের মাথায় ঠিক করে ফেললেন।’

এছাড়া গতকাল জানা যায় বিসিবি প্রধানের খুব কাছের মানুষ ছিলেন আফজালুর রহমান সিনহা। গতকালের বোর্ড সভার পরে মিডিয়ার সামনে পাপন জানিয়েছিলেন, ‘গতকাল (৮ই আগস্ট) সিনহা ভাইয়ের মৃত্যুর সংবাদ শোনার পরে আমাদের সব কিছুই কেমন যেন হয়ে গেছে।

বাংলাদেশ খেলাধুলার একজন সংগঠক কে তো হারালো, কিন্তু আমার মনে হয় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি আমি।‘বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে যে লোকটাকে আমি সবচেয়ে বেশি বিশ্বাস করতাম এবং যার প্রতি আমি আশ্বস্ত ছিলাম, তিনিই হচ্ছেন সিনহা ভাই।

ওনাকে কোন দায়িত্ব দিলে এটা নিয়ে চিন্তাই করতে হত না। উনার মৃত্যুসংবাদ গ্রহণ করা আমাদের জন্য সবচেয়ে কষ্টের।’

উল্লেখ্য, গত ৮ই আগস্ট রাত প্রায় ১১ টায় ভারতের চেন্নাইয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন তিনি। দেশের অন্যতম সেরা এই ক্রীড়া সংগঠক লিভার ও কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন বেশ কিছুদিন যাবত।এরপরে গত কয়েক মাস সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

কিন্তু অবস্থার উন্নতি না ঘটায় শেষপর্যন্ত মৃত্যুর কাছেই হার মানেন বরেণ্য এই ক্রীড়া সংগঠক।