ভারতে ১০ বছর ধরে বোনকে ‘ধর্ষণ’ করছে ভাই!

নিজের ভাই ১০ বছর ধরে ধর্ষণ করছে বোনকে। ভাইয়ের দিকে এমন অভিযোগের তীর ছুঁড়লেন স্বয়ং বোনই। বাবা-মাকে ভরসা করে বলতে না পরে মেয়েটি দ্বারস্থ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের কন্যাশ্রী ক্লাবের। বাড়ি ফিরে যেতে না চাওয়াই আপাতত মেয়েটি চাইল্ড ওয়েলফেয়ার এর হেফাজতে থাকবে বলে জানিয়েছেন পাবলিক প্রসিকিউটর দেবব্রত সাঁই।

শনিবার (২৯ সেপ্টেম্বরর) ভারতীয় গণমাধ্যমে উঠে এসেছে এমন খবর। সম্প্রতি পরকীয়াকে আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ নয় বলে রায় দেয় ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। সেই রায়ে মত্ত সারা ভারত। কিন্তু ঘরের মধ্যেই যখন নাবালিকা নিজের ভাইয়ের কাছে ধর্ষিতা হয়, আর বাবা-মায়ের কোনও সাহায্যই সে পায় না, তখন পরিস্থিতি হয়ে ওঠে ভয়ঙ্কর। এই অপরাধের শাস্তি কে দেবে?

জানা গেছে দশম শ্রেণির ঐ ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে তার ভাইকে। ঘটনাটি দুর্গাপুরের ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে। নাবালিকা ঐ মেয়ের অভিযোগ তার ভাই অমিত সিংহ বাবা-মায়ের সামনেই ১০ বছর ধরে তাকে শারীরিক নিগ্রহ ও ধর্ষণ করছে ।

তবে এই নাবালিকার পক্ষে ভয়ঙ্কর ঘটনাটি সামনে নিয়ে আসা সহজ ছিল না। তার বাবা-মাকেই ভরসা করতে পারছিল না ছাত্রীটি।

ত্রাতা হিসেবে সামনে আসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের কন্যাশ্রী ক্লাব। বাবা-মায়ের সাহায্য না পেয়ে ছাত্রীটি স্কুলের কন্যাশ্রী ক্লাবের সদস্যদের দ্বারস্থ হয়। তারাই বন্ধুকে নিয়ে যায় স্কুলের শিক্ষকদের কাছে।

তারাই ম্যাডামের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেয়। তখন শিক্ষিকারা নিজের মা-বাবাকে এই ঘটনার কথা বলতে বললেও, সে বলতে পারেনি।

স্কুলের প্রধানশিক্ষক কলিমুল হক বলেন, ‘আমরাও ভাবতে পারিনি যে, নিজের ভাই এরকম করবে।’

নানা প্রশ্ন করে বিষয়টি যাচাই করে বাবা-মাকে স্কুলে ডাকা হলেও, তাঁরা মেয়ের দিকেই আঙুল তোলে। তাঁরা বলেন, ‘আমাদের মেয়ে খারাপ। ছেলে ভাল।’

শুক্রবার সকালে দুর্গাপুর নিউটাউনশিপ থানায় ভাইয়ের নামে লিখিত অভিযোগ করে ছাত্রীটি। পুলিশ অমিত সিংহকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করলে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন মহামান্য বিচারপতি।

এছাড়া মেয়েটির মেডিক্যাল পরীক্ষা করানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।-কালের কণ্ঠ অনলাইন