‘এত ক্ষ্যাত মেয়েরা কীভাবে ফাইনালিস্ট হয় মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশে?’

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮’ এর মুকুট উঠেছে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী’র মাথায়। রোববার (৩০ সেপ্টেম্বর) বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে আয়োজিত জমকালো গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিচারকরা চূড়ান্ত বিজয়ীকে নির্বাচন করেন।

এছাড়াও দ্বিতীয় হয়েছেন ‌নিশাত মাওয়া সালওয়া ও তৃতীয় হয়েছেন না‌জিবা বুশরা। তবে মিস ওয়ার্ল্ড-২০১৮ নিয়ে বিতর্ক যেন পিছুই ছাড়ছে না।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৮ অংশগ্রহণকারীদের কিছু ভিডিও ক্লিপ বেড়িয়েছে, যেখানে বিচারকদের সহজ কিছু প্রশ্নের উত্তর দেখে হেসেছেন দর্শকরাও। এর এ প্রসঙ্গে লাক্স সুন্দরী ফারিয়া শাহরিন তার ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দেন। নিম্নে দেয়া হল।

”আমরা কেন এই মেয়েগুলাকে নিয়ে হাসতেছি? ওদের কী দোষ…ওরা তো জেনেই আসছে যে ওদের চেহারাটাই আসল। ওদের কি শিক্ষাগত যোগ্যতা দেওয়া হয়েছিল নিবন্ধনের আগে? আমার এ নিয়ে সন্দেহ আছে…

আর যদি নাই দিয়ে থাকে ওদের কী গ্রুমিং করাইছে বা কারা করাইছে যারা ‘হাউ আর ইউ’ বলার পর ‘আই এম ফাইন’টা পর্যন্ত বলা শিখাই নাই?

এত ক্ষ্যাত মেয়েরা কীভাবে ফাইনালিস্ট হয় মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশে? বিচারকরা কীভাবে ওদের এত দূর আনলো?

যতদূর জানি যে প্রতিযোগিতায় অনেকগুলো রাউন্ড থাকে। তাহলে এতগুলো রাউন্ড কীভাবে এই মেয়েগুলা শেষ করে ফাইনালে আসলো?

এই দেশে সবসময় খোমারই(চেহারা) মূল্যায়ন হয়, যোগ্যতার না…তাই এসব মেয়ে ওইটা জেনেই আসছে…
ব্যর্থতা এসব সংগঠকদের যারা এত বড় একটা প্ল্যাটফর্মকে কমেডি শো বানানোর সুযোগ করে দেয়…”