ঘূর্নিঝড় তিতলি’র প্রভাবে পটুয়াখালীতে দমকা হাওয়সহ হালকা ও মাঝারী বৃষ্টিপাত

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী: বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় তিতলির প্রভাবে পটুয়াখালীতে দু’দিন ধরে দফায় দফায় দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃস্টিপাত হচ্ছে।

গতকাল থেকে এপর্যন্ত ২৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। জোয়ারের সময় ৩/৪ ফুট উচু সাগরের ঢেউ তীরে আছড়ে পড়ছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে বিভিন্ন নদ-নদীতে পানি কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এতে কলাপাড়া উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টের ভাঙ্গা বেরীবাধ দিয়ে এবং বেরীবাধ উপচে পানি প্রবেশ করে প্লাবিত হয়েছে ৫টি গ্রাম। পানি বন্দি রয়েছে কয়েক হাজার মানুষ। বন্ধ রয়েছে পায়রা সমুদ্র বন্দরের কার্যক্রম।

পায়রা সমুদ্র বন্দর এলাকায় চার নম্বর সর্তকতা সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। সংকেত আরও বাড়তে পারে বলে ধারনা করছেন সংশ্লিষ্ট দপ্তর। প্রতিটি উপজেলায় দুর্যোগ ব্যাবস্থাপনায় জরুরি পদক্ষেপ গ্রহনের নির্দেশ দেয়াসহ বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সভা আহবান করেছে প্রশাসন।

পটুয়াখালী নদী বন্দরে ২ নম্বর সতর্কতা সংকেত থাকায় আভ্যন্তরীনসহ দুরপাল্লার সকল রুটের নৌযান চলাচল বন্ধ রেখেছে বিআইডাব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ।