‘খালেদার মুক্তি আমি চাই না’

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘আমি খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই না। কারণ শেখ হাসিনার হাত থেকে আমাদের মুক্তি কবে, সেটা আগে নিশ্চিত করতে হবে। খালেদা জিয়ার মুক্তি চাওয়ার দরকার নাই। কারণ তিনি জেলে গিয়ে জননেতায় পরিণত হয়েছেন।’

ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় এ সব কথা বলেন তিনি।

সদ্য জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেয়া কাদের সিদ্দিকী আরও বলেন, ‘৭ মার্চ এ সোহরাওয়ার্দীর মাঠে বক্তব্যের মধ্য দিয়ে দেশের স্বাধীনতার পথ উন্মুক্ত হয়েছিল। আজ এ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান থেকেই খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ উন্মুক্ত হবে। গণতন্ত্র মুক্তির পথ উন্মুক্ত হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আল্লামা শফীর সঙ্গে বসেন, সমাবেশ করেন, আমি কাদের সিদ্দিকী ভুলি নাই। শাপলা চত্বরে রক্তের স্রোত ভুলি নাই।’

দুপুর ২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বেলা সাড়ে ১১টায় বিএনপির সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংস্থা জাসাস কর্মীদের সম্মিলিত সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন বিকেল ৩টার সভামঞ্চে উপস্থিত হন। এর আগে সভামঞ্চে উপস্থিত হন ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, জাফরুল্লাহ চৌধুরী, মাহমুদুর রহমান মান্না,

আ স ম আবদুর রব, সুলতান মো. মনসুর, মোস্তফা মহসীন মন্টু, আবদুল মালেক রতন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান প্রমুখ।-জাগো নিউজ