তাইজুলের অনন্য কীর্তি

এর আগে বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে টানা তিন ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেয়ার কীর্তি ছিল বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। এবার সাকিবের পর অনন্য কীর্তি গড়লেন স্পিনার তাইজুল ইসলাম।

২০০৮ সালের নভেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নেন সাকিব। এরপর একই বছরের ডিসেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট তোলেন সাকিব। বাংলাদেশের হয়ে প্রথম কোনো বোলার হিসেবে টানা তিন ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেয়ার কীর্তিটা গড়েছিলেন দেশসেরা এই অলরাউন্ডার।

এরপর ৯ বছরে সাকিবের এমন কীর্তিতে ভাগ বসাতে পারেননি দেশের কেউই। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট তোলেন তাইজুল। মিরপুরে চলছে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট তুলে নিলেন তাইজুল। তাতেই সাকিবের পর টানা তিন ইনিংসে ৫ উইকেট তোলার কীর্তি গড়লেন তাইজুল। তবে সাকিবের কীর্তিটা আলাদা দুটি দলের বিপক্ষে হলেও, তাইজুল গড়েছেন একই দলের বিপক্ষে (জিম্বাবুয়ে)।

বাংলাদেশের হয়ে এক টেস্টে ১০ উইকেট নেয়ার কীর্তি আছে চারজনের। প্রথমবার এক টেস্টে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন এনামুল হক জুনিয়র। সেই ২০০৫ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এক টেস্টে ১২ উইকেট নিয়েছিলেন এই স্পিনার। এরপর টেস্ট ক্রিকেটে একই কীর্তি গড়েছেন সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ। এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিলেট টেস্টে ১১ উইকেট নেন তাইজুল (৬,৫)।

তবে এক টেস্টে ১০ উইকেট চার জন নিলেও সাকিব আল হাসানের সেই কীর্তি আছে দুই বার। প্রথমবার ২০১৪ সালে এই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পেয়েছিলেন ১০ উইকেট। আর গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশকে এনে দিয়েছিলেন স্মরণীয় এক জয়।

এবার তাইজুলের সামনে সুযোগ থাকছে সাকিবের সঙ্গে আরেকটি কীর্তিতে ভাগ বসানোর। চলতি টেস্টের শেষ ইনিংসে ৫ উইকেট পেলেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে দুই টেস্টে ১০ উইকেট করে নেয়ার কীর্তি গড়বেন তাইজুল।এ নিয়ে ২১তম টেস্টে ৮৫ উইকেট হলো তাইজুলের।