স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী ডেলিভারিম্যান ও একটি ভাইরাল হওয়া পোস্ট

কলকাতার এক কলেজ শিক্ষার্থীর আক্রমণাত্মক পোস্ট এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল। আরো বেশি চাকরির ক্ষেত্র তৈরির প্রসঙ্গে দেওয়া পোস্টটি হৃদয়গ্রাহীও বটে।সম্প্রতি কলকাতার এক রেস্টুরেন্টে খাবার খাবার অর্ডার করেন দেশটির এক কলেজ শিক্ষার্থী। শৌভিক দত্ত নামের ওই শিক্ষার্থী জানতে পারেন তাকে খাবার সরবরাহকারী একজন স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী।

পরে এ নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন শৌভিক। তিনি লেখেন, ‘সম্ভবত এটিই একমাত্র সময় যখন আমি জমাটোতে (ডেলিভারি রেস্টুরেন্ট) খাবার অর্ডার করার জন্য অনুতাপ প্রকাশ করছি।’শৌভিক তার পোস্টে লেখেন, মিরাজ নামের যিনি রেস্টুরেন্টটির খাবার ডেলিভারি করেছেন তিনি কমার্সে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী। তিনি তার জীবনের ‘সবচেয়ে লজ্জাজনক’ মুহূর্ত হিসেবে ওই সময়কে স্মরণ করেন- যখন মিরাজ তার খাবার ডেলিভারি দেন।

শৌভিক আরো লিখেছেন, ‘আমাদের মধ্যে চট করে কিছু কথাবার্তা হয় এবং এর মাধ্যমে আমি জানতে পারি মিরাজ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমকম গ্রাজুয়েট এবং তিনি ফিন্যান্স বা ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং অথবা অনুরূপ কোনো বিষয়ে পিজিডিএম করেছেন।

ঘটনার পর শৌভিকের মন খানিকটা বিদ্রোহী হয়ে ওঠে। উপসংহারে তিনি লেখেন, ‘এই দেশটির পরিবর্তন দরকার। এই রাষ্ট্রের পরিবর্তন দরকার। আমাদের জন্য চাকরির ক্ষেত্র সৃষ্টি প্রয়োজন। আমরা এক কঠিন সময়ের মধ্যে বসবাস করছি। এই দেশের পরিবর্তন দরকার।’

পোস্টটিতে আড়াই হাজারেরও বেশি প্রতিক্রিয়া পড়ে। অনেক শেয়ারসহ ভাইরাল হয়ে যায় এটি।

সূত্র : এনডিটিভি