ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের চ্যাম্পিয়ন হল বাংলাদেশ

সিরিজের ফাইনালের ২০ ওভার না যেতেই হানা দেয় বৃষ্টি। অবশেষে বৃষ্টি বন্ধ হয়েছে মালাহাইড ক্রিকেট ক্লাব গ্রাউন্ডে। বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১০টায় খেলা আবারো ফের শুরু হয়। এই ম্যাচে হয় ২৪ ওভারের। বৃষ্টির আগ পর্যন্ত ২০ ওভার এক বলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোনো উইকেট না হারিয়ে ১৩১ রান তোলে। পরে ফের ব্যাটিংয়ে নেমে ২৪ ওভার খেলে ১ উইকেটে হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ফলে বৃষ্টি আইনে ২৪ ওভারে বাংলাদেশকে ২১০ রানের টার্গেট দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ২২.৫ ওভার খেলে ৫ উইকেট হারিয়ে ২১৩ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। ফলে ৫ উইকেটের ব্যবধানে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের চ্যাম্পিয়ন হল বাংলাদেশ। এই জয়টি বাংলাদেশের জন্য একটি ঐতিহাসিক জয়।

এদিকে, ব্যাটিংয়ে নেমে ১৩ বলে ১৮ রান করে সাজঘরে ফিরেন তামিম ইকবাল। পরে শূন্য রানে খালি হাতে মাঠ ছাড়েন হার্টহিটার আরেক ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। তারপর দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি করেন সৌম্য সরকার। পরে ৪১ বলে ৬৬ রান করে আউট হন তিনি। ২২ বলে ৩৬ রান করে আউট হন মুশফিকুর রহিম। ১৪ বলে ১৭ রান করে আউট হন মিথুন। দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি করেন মোসাদ্দেক। ২৪ বলে ৫২ করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক ও ২১ বলে ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল্লাহ।

এর আগে ফের ফিল্ডিংয়ে এসে শাই হোপকে আউট করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। শাই হোপ ৬৪ বলে ৭৪ রান করে সাজঘরে ফিরেন। ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড জানিয়েছিল বৃষ্টির কারণে খেলা না হলে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হবে। গ্রুপপর্বের খেলায় বাংলাদেশ একটি ম্যাচও হারেনি। দুইবারের দেখায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে দিয়েছিল টাইগাররা। এ ছাড়া আয়ারল্যান্ডকেও বড় ব্যবধানে হারিয়েছে মাশরাফি বাহিনী।

ডাবলিনের মালাহাইড ক্রিকেট গ্রাউন্ডে আজ শুক্রবার বাংলাদেশ সময় বিকেল পৌনে ৪টায় শুরু হয় ম্যাচটি। শিরোপা নির্ধারনী এই ম্যাচে টসে জিতে ক্যারিবীয়দের ব্যাটিংয়ে পাঠান টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা।

ফাইনালে খেলতে নামার আগে টাইগারদের জন্য বড় দুঃসংবাদ হয়ে দাঁড়ায় সাকিবের না থাকাটা। অবশ্য গতকালই ফিজিওর কথায় আঁচ পাওয়া গিয়েছিল সাকিব খেলতে পারবেন না ফাইনাল। শেষ পর্যন্ত সামনে বিশ্বকাপের কথা বিবেচনা করে তাকে বিশ্রামেই রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

এই ম্যাচে চার পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। সাকিব ছাড়াও এই ম্যাচে একাদশে জায়গা পাননি আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলা লিটন দাস ও আবু জায়েদ রাহী। এ ছাড়া বাদ পড়েছেন রুবেল হোসেন। এই ম্যাচে একাদশে এসেছেন মোহাম্মদ মিথুন, সৌম্য সরকার ও মোস্তাফিজুর রহমান।

বাংলাদেশ একাদশ: মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মাদ মিঠুন, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: জেসন হোল্ডার, ড্যারেন ব্রাভো, শাই হোপ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, কেমার রোচ, সুনিল অ্যামব্রিস, রেয়মন্ড রেইফার, ফাবিয়ান অ্যালেন, অ্যাশলে নার্স, রস্টোন চেজ, জোনাথন কার্টার।