সাকিবের জায়গা কোনোভাবেই পূরণীয় নয় : সুজন

আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরে পাওয়া যাচ্ছে না বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে। পবিত্র হজ্জ পালন করার জন্য ছুটি নিয়েছেন এ তারকা খেলোয়াড়। যে কারণে দলে ভারসাম্যতা আসছে না বলে মনে করছেন টাইগারদের ভারপ্রাপ্ত কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। শ্রীলঙ্কা সিরিজে সাকিব না থাকায় দলের উপর বিরূপ প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন সুজন। তার জায়গা কোন ক্রিকেটারই পূরণ করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন তিনি। সুজন বলেন, ‘অবশ্যই।

সাকিবের জায়গা তো পূরণীয় নয়। সাকিব তো সাকিবই। বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার। ওকে না পাওয়া স্বাভাবিকভাবে আমাদের দলের ভারসাম্যে ব্যাঘাত ঘটবে।’ অবশ্য সাকিব দলে না থাকায় তার জায়গায় ওয়ানডে দলে বাঁহাতি স্পিনারের ঘাটতি পূরণ করতে সুযোগ দেয়া হয়েছে তাইজুল ইসলামকে। যিনি তিন বছর পর বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে ডাক পেয়েছেন। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কার মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যাবে বাংলাদেশ দল।

২৬ই জুলাই কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে প্রথম ওয়ানডেতে লড়বে দুই দল। এরপর ২৮ এবং ৩১ তারিখ একই মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বাকি দুটি ওয়ানডেও।

আরো পড়ুন: জাতীয় দলে সুযোগ কাজে লাগাতে দৃঢ় প্রত্যয়ী বিজয়

আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে গতকাল মঙ্গলবার স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এতে দেড় বছর পর জাতীয় দলে জায়গা পেয়েছেন এনামুল হক বিজয়। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ইনজুরিতে পড়েন এবং ঘরের মাঠে গত বছর উইন্ডিজের বিপক্ষে দলে জায়গা পেলেও বাজে পারফরমেন্সে বাদ পড়তে হয় তাকে। যদিও ওই সময়ে সবাই ভেবেছিলো বিজয়ের আর ফেরার সম্ভাবনা নেই।

কিন্তু শ্রীলঙ্কা সফরে লিটনের জায়গায় ঠিকই আসলেন বিজয়। ঘরোয়া ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে নজরকাড়া পারফরম্যান্স করায় আবারও সুযোগ পেয়েছেন তিনি। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দলে স্থায়ীভাবে জায়গা করতে দৃঢ় প্রত্যয়ের কথাও জানিয়েছেন বিজয়। বুধবার সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বিজয় জানান, ‘আমি এমন দিনের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এখন আমার একমাত্র কাজ হচ্ছে ভালো খেলা।

একজন ক্রিকেটার হিসেবে আমি বিশ্বাস করি পারফরম্যান্সই সব কিছু। সিরিজটা ভালো খেলতে চাই।’ দীর্ঘদিন পর দলে ফিরে সুযোগ কাজে লাগানোর প্রত্যয়ে তিনি বলেন, ‘আশা করছি এবার সুযোগটা কাজে লাগাতে পারবো। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।’ বর্তমানে বাংলাদেশ এ দলের হয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলছেন বিজয়। সেখানে দারুণ খেলছেন তিনি। ঝকঝকে একটি সেঞ্চুরি তুলেই নির্বাচকদের দৃষ্টি কাড়েন এ ওপেনার।

এছাড়া চলতি বছর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও দারুণ খেলেছেন বিজয়। শুরু করেছিলেন দুর্দান্ত। টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন। কিন্তু শেষ দিকে সে ধারাটা ধরে রাখতে পারেননি। তারপরও ১৬ ম্যাচে করেছেন ৫৫২ রান।