‘এটা হজম করতে কয়েক বছর লেগে যেতে পারে’

শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনাল ম্যাচে বাউন্ডারি গণনায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেরেছে নিউজিল্যান্ড। কাপের এতো কাছে গিয়েও জেতা হলো না কিউইদের। বিশ্বকাপ না জিততে পারায় অনুশোচনায় ভুগছেন কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। আর গতকাল অকল্যান্ডে পৌঁছে ট্রেন্ট বোল্ট বলেন, এটা (ফাইনালে হার) হজম করতে কয়েক বছর লেগে যেতে পারে। সমর্থকদের হতাশ করার জন্য আমি দুঃখিত।

সমর্থকরা চেয়েছিল আমরা যাতে ম্যাচটা জিতি। তাদের সবাইকে হতাশ করাটা লজ্জার। বিশ্বকাপ না জিততে পারায় আমরাও কষ্ট পাচ্ছি। আমার মনে হয়, ট্রফির এতটা কাছে পৌঁছে হার দেখবে না আর কেউই ’। মহাকাব্যিক ফাইনালে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড নির্ধারিত ১০০ ওভারের ম্যাচে টাই হয়। সুপার ওভারেও ম্যাচের ফল নিষ্পত্তি করতে ব্যর্থ। পরে বাউন্ডারি গণনায় ইংল্যান্ডের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ জেতে।

এমন রোমাঞ্চকর ম্যাচ নিয়ে বোল্ট বলেন, ‘এমন ম্যাচে স্নায়ুচাপ থাকবেই। ম্যাচটা অন্যরকম হতে পারতো। ম্যাচে আমরাও জিততে পারতাম। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য, হলো না। সম্ভবত বিশ্বকাপ ট্রফির এতটা কাছে পৌঁছে হার দেখবে না কেউ আমাদের মতো। এটা হজম করতে কষ্ট হচ্ছে।’ এমন হার ভুলে যাওয়াটা কঠিন হবে, বলেন কিউই গতি তারকা ট্রেন্ট বোল্ট। বাড়ি ফিরে নিজের পরিকল্পনার কথা জানালেন ২৯ বছর বয়সী এই কিউই পেসার।

তিনি বলেন, ‘চারমাস পর বাড়ি ফিরছি। আমার কুকুরকে নিয়ে সৈকতে হাঁটবো। আশা করি সে (কুকুর) আমার উপর রেগে যাবে না। বিশ্বকাপে পরাজয়ের কষ্টটা ভুলে থাকার চেষ্টা করবো। হ্যাঁ সামনে শ্রীলঙ্কা সফর আছে, সেটা নিয়ে ভাবতে হবে। আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে। এটা হজম করতে কয়েক বছর লেগে যেতে পারে।’