আইয়ুব বাচ্চুর ‘ঘুমন্ত শহরে’ গানটি গেয়ে গ্র্যান্ড ফাইনালে নোবেল (ভিডিওসহ)

ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল জি বাংলায় প্রচারিত ‘সারেগামাপা’ অনুষ্ঠানে ঢাকার ছেলে মাইনুল আহসান নোবেল এবার শেষ চারের লড়াইয়ে গাইলেন ‘এলআরবি’র প্রধান প্রয়াত ব্যান্ড তারকা আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় গান ‘ঘুমন্ত শহরে’। এই গানটি গেয়েই নোবেল গ্র্যান্ড ফিনালের শেষ চার প্রতিযোগীর একজন হয়ে গেলেন। ২২ জুলাই, সোমবার নোবেল তার ফেসবুক পেজে গানটি আপলোড করেছেন।

গানটি গাওয়ার পর আগের পর্বগুলোর মতো এবারেও বিচারকদের কাছ থেকে বেশ ভালো ভালো মন্তব্য পেয়েছেন নোবেল। বিচারক প্যানেলের সকলেই এসময় নোবেলের এই গানটিকে ‘রোকিং পারফরমেন্স’ বলে অভিহিত করেন। শেষ চারের লড়াইয়ে এর আগে নোবেল জেমসের ‘হতেও পারে এই দেখা শেষ দেখা’ গানটি গান। গানটি গেয়ে নোবেল গোল্ডেন গিটার পেলেও বিচারকরা জানান, নোবেলের আরও একটি গান শুনবেন অন্যান্য প্রতিযোগীদের গান শোনার পর।

এরপর সিদ্ধান্ত নেবেন নোবেল গ্র্যান্ড ফিনালেতে যাচ্ছে কিনা। পরে নোবেল আইয়ুব বাচ্চুর ‘ঘুমন্ত শহরে’ গানটি গাইলে বিচারকরা জানিয়ে দেন নোবেল হচ্ছে শেষ চার জন প্রতিযোগীদের মধ্যে একজন। অর্থাৎ নোবেল পৌঁছে গেল গ্র্যান্ড ফিনালেতে। সারেগামাপাতে এর আগে নোবেলের গাওয়া অনেকগুলো গান বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। বিচারকদের কাছ থেকেও নোবেল বেশ ভালো ভালো মন্তব্য পেয়েছেন।

নোবেল সারেগামাপাতে তার গাওয়া জেমসের কালজয়ী ‘বাবা’ গানটির মাধ্যমেই সর্বপ্রথম জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে পড়ে সেই গানটি। এ ছাড়া অনুপম রায়ের জনপ্রিয় গান ‘আমাকে আমার মতো থাকতে দাও’, কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত বাংলা স্বাধীন রক সংগীত ব্যান্ড ‘মহীনের ঘোড়াগুলি’র জনপ্রিয় গান ‘আলোকবর্ষ দূরে’ ছাড়াও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা ‘কারার ঐ লৌহ কপাট’ গানও নোবেল সারেগামাপাতে গেয়ে বেশ জনপ্রিয়তা পান।

ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল জি-বাংলায় আগামী ২৮ জুলাই প্রচার হবে ‘সারেগামাপা’র গ্রান্ড ফিনালে।-প্রিয়

ভিডিওটি দেখতে এই লিংকে ক্লিক করুন।