টয়লেটের চেয়ে বেশি জীবাণু থাকে স্মার্টফোনে

স্মার্টফোন এবং জীবাণু৷ ভাবতেই পারেন, এদের মধ্যে যোগাযোগটা কী? আসলেই কিন্তু রয়েছে গভীর সর্ম্পক৷ আর তার সবটাই অস্বাস্থ্যকর৷ এমনই জানাচ্ছেন একদল গবেষক৷ অস্বাস্থ্যকর জায়গা বললে প্রথমেই মনে আসে টয়লেটের কথা৷ কিন্তু জানেন কী, তার থেকেও বেশি জীবাণুর বাসা আপনার সাধের স্মার্টফোনের স্ক্রিনটিতে৷

সাম্প্রতিক এক গবেষণার তথ্য অনুযায়ী, টয়লেটের থেকে তিনগুণ বেশি জীবাণু থাকে একটি স্মার্টফোনের স্ক্রিনে৷ ৩৫ শতাংশের বেশি মানুষ পরিষ্কার করেন না ব্যবহৃত স্মার্টফোনটি৷ তথ্য অনুসারে, বেশিরভাগ স্মার্টফোনেই পাওয়া গেছে টয়লেট সিটের থেকে তিন গুণ বেশি জীবাণু৷ প্রতি ২০ জনের মধ্যে একজনকে নিজের ফোন পরিষ্কার করতে দেখা গেছে৷

গবেষণার জন্য বেছে নেওয়া হয় তিনটি সেট, iPhone 6, Samsung Galaxy 8 এবং Google Pixel৷ লক্ষ্যে রাখা হয়, প্রধানত বায়ুজীবী ও ইস্টজাতীয় জীবাণুদেরকে৷ গবেষণায় প্রত্যেকটি সেট থেকেই কিছু না কিছু জীবাণুর নমুনা পাওয়া গিয়েছে ৷

একটি স্মার্টফোনের সবথেকে নোংরাতম (আনহাইজিনিক) জায়গা হল স্ক্রিন বা ডিসপ্লে৷ ত্বকের সমস্যা থেকে শুরু করে অন্যান্য সমস্যাও হতে পারে এই স্মার্টফোনের স্ক্রিনের কারণেই৷

সেই গবেষণাকালে অনেকেই জানিয়েছেন, তারা দীর্ঘসময় ধরে পরিষ্কার করেননি তাদের মোবাইল ফোনের স্ক্রিন৷ এক গবেষক জানান, ‘আমাদের ফোন কখনও আমাদের থেকে দূরে থাকে না, যেখানেই যাই সর্বত্রই সেটিকে নিয়ে যাই৷ সুতরাং, খুব স্বাভাবিক নিয়মেই যাতায়াতের মাঝে বেশ কিছু জীবাণু আটকে যায় স্মার্টফোনের স্ক্রিনে’৷