নির্বাচকদের রাডারে কবে আসবেন মমিনুল?

শেষবারের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ব্যাট হাতে একেবারেই নিষ্প্রভ ছিলেন টাইগার ব্যাটসম্যান মমিনুল হক। ‘টেস্ট বিশেষজ্ঞ’ খ্যাত এই ক্রিকেটার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও খেলেছিলেন শুধুমাত্র টেস্টে।

কিন্তু বলার মতো কিছুই করে দেখাতে পারেননি তিনি। এরপরে জাতীয় দল যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই ওয়ানডে আর টি-টুয়েন্টি সিরিজে ব্যস্ত, তখনই মমিনুলকে ‘এ’ দলের অধিনায়ক বানিয়ে আয়ারল্যান্ডে পাঠায় নির্বাচকরা।

ওয়ানডে বা টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে মমিনুলকে আরেকটু বাজিয়ে দেখাই ছিল উদ্দেশ্য। আর মমিনুলও আয়ারল্যান্ডে গিয়েছিলেন আটঘাট বেঁধেই। সাদা বলের ক্রিকেটেও নিজের মুন্সিয়ানা প্রমাণের সুযোগ হাতছাড়া করেননি তিনি।

সেই সফরে পাঁচটি ওয়ানডেতে ৪৬ রানের কার্যকরী দুটো ইনিংস ছিল মমিনুলের। এছাড়া একটায় ছিল ২৩ রান আর পরিত্যক্ত হওয়া সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাট হাতে নামতে পারেননি তিনি।

শুধু এই তিনটি ইনিংসে নয়, মমিনুল আলোচনায় এসেছেন সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডের পারফর্মেন্সে। ম্যাচটিতে ১৩৩ বলে ২৭ টি চার ও তিনটি ছয়ের সাহায্যে ১৮২ রানের অনবদ্য একটি ইনিংস খেলেছিলেন মমিনুল।

যা সাদা বলের ক্রিকেটে তার সামর্থ্য প্রমাণে উল্লেখযোগ্য একটি পারফর্মেন্স। এছাড়া বেশ কিছু প্রাপ্তিও আছে তার। ভেঙেছিলেন বেশ কিছু রেকর্ডও। তবে এতো দারুণ পারফর্মেন্সের পরেও এশিয়া কাপের স্কোয়াডে জায়গা মেলেনি তার।

বিস্তারিত এই লিঙ্কে…

নিজের নামের আগে ‘টেস্ট বিশেষজ্ঞ’ তকমা পাওয়া মমিনুলের সাদা বলের ক্রিকেট সামর্থ্য আরও আগেও প্রমাণ হয়েছে বারংবার। কিন্তু দিনশেষে সাদা বলের ক্রিকেটে কোনোভাবেই জায়গা হচ্ছে না তার।