ঋণে জর্জরিত, দেউলিয়া হয়ে গিয়েছেন প্রিয়াঙ্কার হবু শ্বশুরমশাই !

নিকের সঙ্গে বাগদান সেরে ফেলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। বিয়ে শুধু এখন সময়ের অপেক্ষা। এরই প্রিয়াঙ্কার হবু শ্বশুরমশাই সম্পর্কে উঠে আসছে একটি খবর। শোনা যাচ্ছে প্রিয়াঙ্কার হবু শ্বশুরমশাই অর্থাৎ নিক জোনাসের বাবা পল জোনাস নাকি দেউলিয়া হয়ে গেছেন। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, নিকের বাবা পল কেভিন জোনাস নাকি এই মুহূর্তে ১ মিলিয়ন ডলার দেনায় ডুবে রয়েছেন।

TMZ সূত্রে খবর, পল জোনাসের নিউ জার্সিতে একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি রয়েছে। সেই কোম্পানিটি একটি মামলায় হেরে যায়। যার ফলে ক্ষতিপূরণ হিসাবে পল জোনাসের ওই কোম্পানিকে ২৬৮০০০ ডলার দিতে হয়। তারপর থেকেই বিশেষ লাভজনক অবস্থাতে নেই পল জোনাসের ওই কোম্পানি। সব মিলিয়ে পল জোনাসের ওই কোম্পানির দেনার পরিমান ১ মিলিয়ন ডলার। এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে নিউ জার্সিতে কোম্পানির সম্পত্তি বিক্রির কথাও ভাবছেন নিকের বাবা পল কেভিন জোনাস।

জানা যাচ্ছে পল কেভিন জোনাসের এই কোম্পানিকে প্রিয়াঙ্কার হবু বর নিকেরও অংশ ছিল। ২০১৩ সালে নিক ও তাঁর ভাইদের মিলে তৈরি গানের ব্যান্ড জোনাস ব্রাদার’স ভেঙে যাওয়ার আগে তাঁরা তাঁদের বাবার এই কোম্পানির মাধ্যমে সারা বিশ্বে তাঁদের গানের প্রচুর রেকর্ড বিক্রি করেছেন। এই মুহূর্তে নিক জোনাসের সম্পক্তির পরিমান ২৫ মিলিয়ন ডলার। যার বেশিরভাগটাই নিক সোলো আর্টিস্ট হিসাবে আয় করেছেন। পাশাপাশি নিকের ভাই জো জোনাস এবং কেভিন জোনাসের সম্পত্তির পরিমান যথাক্রমা ২০ মিলিয়ন ও ১৮ মিলিয়ন ডলার। তাই যদি নিক ও তাঁর ভাইয়েরা ঋণ মেটাতে তাঁদের বাবার পাশে দাঁড়ান, তাহলে হয়ত এই ঋণ মেটানো খুব একটা বড় ব্যাপার নয় বলেই মনে করছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম।

উল্লেখ্য জোনাস পরিবারের বহু বৌ প্রিয়াঙ্কার সম্পত্তির পরিমান ২৮ মিলিয়ন ডলার ও নিকের ভাই জো জোনাসের স্ত্রী সোফি টার্নারের সম্পত্তির পরিমান ১৮ মিলিয়ন ডলার।