ভুল বোঝাবুঝিতে সাকিব

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ইংরেজি পত্রিকায় সাক্ষাৎকার দিয়ে বিপদে পড়েছেন টেস্ট ও টি-টুয়েন্টির অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। হাতের ইনজুরি থাকা পরও পবিত্র হজ পালনের পর দেশে ফিরে এশিয়া কাপে খেলার ব্যাপারে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সাকিব।

কিন্তু তাঁর কিছুদিন পরেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে দ্য ডেইলি স্টারকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের ফিটনেস নিয়ে সাকিব বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমি ২০-৩০ ভাগ ফিট। আমার হাতে এখনো ব্যথা আছে। সত্যি বলতে আমি জানি না, আমি কিভাবে ব্যাট ও বল করব। আমি অনুশীলন থেকে বাইরে আছি বেশ কিছুদিন ধরে, আমার কোন ধারনা নেই।’

সাকিবের এমন মন্তব্য চোখ ছানাবড়া অবস্থা টিম ম্যানেজমেন্টের। প্রধান কোচ স্টিভ রোডস ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা তো ফিটনেসের শতকরা হিসেব শুনে অবাক। টুর্নামেন্টে যাওয়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে কোচ রোডস বলেছেন,

‘আমি বিশ্বাস করি না সে ২০-৩০% ফিট। আমি মনে করি সে এরচেয়েও বেশি ফিট। এমন বক্তব্য হেডলাইনে ভালো মানায়। আমি অনেকটাই নিশ্চিত, সাকিব এরচেয়েও বেশি ফিট। ওয়েস্ট ইন্ডিজে সে যেমন ছিল, তেমনই আছে। সেখানে সে ব্যাট, বল ও ফিল্ডিং এ দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে।’

ধোঁয়াশা দূর করতে বিসিবির হস্তক্ষেপ দরকার পড়ে। বিসিবির পক্ষ থেকে সাকিবের কাছে সাক্ষাৎকারের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হয়েছে। ক্রিকবাজকে এক বিসিবি কর্তা জানিয়েছেন,

‘হয়তো সাকিবের কথার ভুল ব্যাখ্যা দেয়া হয়েছে। আমরা বুঝতে পারছি সে কি বলতে চেয়েছে। সাকিব অনেকদিন খেলার বাইরে ও সে তাঁর ফিটনেস নিয়ে কিছুটা চিন্তিত। কিন্তু সে ২০-৩০% ফিট, ব্যাপারটা এমন নয়।’