এমপি নির্বাচনের সিদ্ধান্তে অটল হিরো আলম

আমাকে নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে, এটা আমিও জানি। অনেকে মনে করছেন, আমার অনেক টাকা বা অনেক সম্পদ আছে। কিন্তু না, আমি এখানো ডিশের (ক্যাবল) ব্যবসা করছি। নির্বাচন করতে টাকা লাগে না, মনোবল থাকতে হয়। একসময় আমার নিজ এলাকার লোকজন আমাকে অবহেলার চোখে দেখেছে। আজ তারা আমাকে ভালোবাসেন। কথাগুলো বলছিলেন হিরো আলম খ্যাত বগুড়ার আশরাফুল হোসেন আলম।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই সময়ে ব্যাপক আলোচিত তিনি। শুক্রবার সকালে মুঠোফোনে সময়ের কন্ঠস্বরকে হিরো আলম বলেন, আগেও বলেছি এখনো বলছি, চেহারা দেখে মানুষের বিচার করা যায় না। প্রতিভা আর ইচ্ছা শক্তিই সবকিছু। দুইবার নিজ এলাকায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। সামান্য ভোটের ব্যাবধানে পরাজিত হয়েছি। আমি মনে করি, এটা আমার বিজয়। এলাকার মানুষ আমাকে ভালোবাসে তার প্রমাণ পেয়েছি।

আশরাফুল হোসেন আলম বলেন, বগুড়া থেকেই আমি আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হব। গণমাধ্যমে আমার এমপি নির্বাচনের সংবাদ দেখে অনেকেই বাজে মন্তব্য এবং কুটক্তি করতেছে। ফেসবুক ও ইউটিউবে যারা আমাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন, এটাকে আমি উৎসাহ মনে করি। আমার চেহারা আল্লাহ’র দান, আমি বলিউডে সুযোগ পেয়েছি। আমার স্বপ্ন, ইচ্ছে শক্তি ও প্রতিভার পাশাপাশি মনোবল রয়েছে। যেকারণে আজ আমি হিরো আলম। গণমাধ্যমের সহযোগিতা পেয়েছি বলেই মানুষ আমাকে চেনে।

তবে বগুড়ার কোন আসন থেকে সংসদ সদস্য প্রার্থী হবেন, এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম সময়ের কন্ঠস্বরকে বলেন, বগুড়া-৬ সদর আসনে আমার বাড়ি। আমি সেখানকার ভোটার। বগুড়ার দুটি আসনের যেকোন একটিতে প্রার্থী হব। আসনগুলোর মধ্যে বগুড়া-৬ সদর ও বগুড়া-৩ (দুপচাঁচিয়া-আদমদীঘি) নির্বাচনী এলাকা। পাঠকের বাজে মন্তব্য ও সমালোচনা প্রসঙ্গে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবকালে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন হিরো আলম।

সূত্রমতে, সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আলোচনায় আসা আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম এবার দেশের গন্ডি পেরিয়ে হিন্দি ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন। অবিশ্বাস্য শুনালেও ঘটনা কিন্তু সত্য। ২ ঘন্টা ১০ মিনিট ব্যাপ্তির একটি বলিউড ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি। ‘বিজু দ্য হিরো’ নামের এই ছবিটি পরিচালনা করবেন প্রভাত কুমার। পরিচালক প্রভাত কুমার ও হিরো আলমের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। আগামী ডিসেম্বর থেকে ভারতের রাঁচি শহরে ছবিটির দৃশ্যধারণের কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে হিরো আলম। বগুড়া থেকে ঢাকায় এসে একের পর মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছেন। ‘মার ছক্কা’ নামের একটি চলচ্চিত্রেও অভিনয়ের সুযোগ মেলে তার। তবে এবার সবকিছুকে ছাড়িয়ে হিন্দি ছবিতে ডানা মেলতে যাচ্ছেন আলোচিত এই অভিনেতা।