বিসিবিকে ওয়ালশের একটি প্রশ্ন…

বিসিবিকে ওয়ালশের একটি প্রশ্নমাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিক, রিয়াদ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পথপ্রদর্শক এই পঞ্চপান্ডব। এটা নিয়ে যেমন বাংলাদেশের গর্ব হয়, তেমনি বয়ও। আর কতদিন সার্বিস দিবেন তারা। নতুনরা না আসলে কারা ধরবে টাইগার শিবিরের হাল।

মাশরাফিরা অবসর নিলে কেমন হবে বাংলাদেশের এনিয়ে যেমন শঙ্কিত বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা, তেমনি বাংলাদেশের বোলিং কোচও। মাশরাফিদের কোচ মনে করেন এখন যদি তরুণদের যোগ্য করে গড়ে তোলা না হয়, তাহলে কবে ওদের তৈরি করবে বাংলাদেশ।

এমন প্রশ্নই বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালসের।কিভাবে তরুণদের তৈরি করতে হবে, তার পথও বাতলিয়ে দিয়েছেন মাশরাফিদের কোচ। তরুণ ক্রিকেটারদেরকে ভবিষ্যতের জন্য প্রস্তুত করতে হলে তাদেরকে পর্যাপ্ত সুযোগ দিতে হবে জাতীয় দলে খেলার।

এর মাধ্যমেই কঠিন সময় থেকে বেরিয়ে এসে পারফর্ম করার মানসিকতা তৈরি করতে পারবে তারামিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়াম সাংবাদিকদের সামনে নির্বাচকদের ওপর কিছুটা খেদই ঝেড়েছেন এই কিংবদন্তী পেসার।

এমনকি নির্বাচকেরা নাকি তরুণদের সুযোগ দিতে ভয় পান এমন কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি।ওয়ালশের ভাষায়, ‘আমাদের অনেক তরুণ ক্রিকেটার উঠে আসছে ঠিকই কিন্তু তারা থিতু হচ্ছেনা। কারণ তাদেরকে দিয়ে দীর্ঘ সময় খেলানো হয়না।

যদি তাদেরকে দলে সুযোগ না দেয়া হয়, আপনি বুঝতে পারবেন না তারা কতটা কার্যকর হতে পারে। এই একটি বিষয়ে সম্ভবত আমাদের নজর রাখা উচিৎ। আমরা তরুণ ক্রিকেটারদের সুযোগ দিতে অনেক বেশি ভয় পাই।

আপনি যদি এভাবে অপেক্ষা করতেই থাকেন এবং তারা খেলার কোনও সুযোগই না পায় তাহলে উন্নতি হবে না।’ক্যারিবিয়ান এই পেসারের প্রশ্নই একটি। বিশেষ করে তরুণদের সামর্থ্য জানতে হলে তাদেরকে টানা খেলার মধ্যেই রাখার পরামর্শ দিয়েছেন ওয়ালশ।

টাইগারদের এই বোলিং কোচের ভাষায়,’আপনি যতই খেলবেন, ততই আপনি দক্ষ হবেন। তারা কি করতে পারে সেটি জানার জন্য কখনও কখনও তাদেরকে আপনার সুযোগ দিতে হবে।

কিন্তু যদি আপনি তারা প্রস্তুত নয় এই কথা বলে তাদেরকে সুরক্ষিত করে রাখতে চান, তাহলে হয়তো তারা কখনোই প্রস্তুত হতে পারবে না।’