এফডিসিতে আবেগ আক্রান্ত অঞ্জু ঘোষ

‘মাতৃভূমিতে এসে মনে হলো তীর্থে পা রেখেছি। কোনদিন কারো ওপর আমার ক্ষোভ ছিল না। আমি বাংলাদেশ ছেড়ে যাইনি।’-দীর্ঘ ২৩ বছর পর এফডিসিতে পা রেখে আবেগে আক্রান্ত দেশীয় চলচ্চিত্রের একসময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা অঞ্জু ঘোষের অনুভূতির প্রকাশ হলো তার মুখ থেকে এভাবেই। দীর্ঘ ২৩ বছর পর এফডিসিতে অঞ্জু ঘোষ আসার পর তাকে সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি।আজ রোববার বিকেলে এফডিসিতে এ সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, খলঅভিনেতা আহমেদ শরীফ, চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন ও চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, শাহনূর।অনুষ্ঠানে অঞ্জু ঘোষ তার বক্তব্যে বলেন,’প্রাণের এফডিসিতে পা রেখে কি যে একটা সেটি লাগছে তা বলে বোঝাতে পারবো না। আমি এসেছি আমার শিল্পী ভাই-বোনরা কেমন আছে তা দেখতে। সিনেমা এখন সবার কাছ থেকে দূরে সরে গেছে। সবাই এখন সিরিয়াল দেখে। ছবির মানুষগুলো দূরে সরে গেছে।

এই বিষয়টাতে কষ্ট লাগছে। আমাদের সময় সিনেমাকেই ঘর-সংসার মনে হতো। একটা সময় ছিল শুটিং স্পটই সব ছিল। তও আশা করি খারাপ সময়ের পর আবার ভালো সময় আসবে।’

উল্লেখ্য,দেশীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ব্যবসা সফল ছবি ‘বেদের মেয়ে জোছনা’ ছবিতে বেদের মেয়ে চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন চিত্রনায়িকা অঞ্জু ঘোষ। ১৯৮৯ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‎তোজাম্মেল হক বকুল পরিচালিত এই ছবিটি। এই ছবিটির মধ্য দিয়েই চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন ও অঞ্জু ঘোষ তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।