গরমের সাথে মানিয়ে নেয়া বড় চ্যালেঞ্জ : সাকিব

সাকিব আল হাসান ফিট আছেন এশিয়া কাপে প্রথম ম্যাচ থেকেই খেলতে আত্মবিশ্বাসী। তবে, তার আগে অনুশীলনে নিজেকে যাচাই করে নিতে চান। আরব আমিরাতে প্রথম দিনে ব্যাট-বলে ঘণ্টাখানেক অনুশীলন করেছেন টাইগার অলরাউন্ডার। এশিয়া কাপে টাইগারদের সম্ভাবনা, ফিটনেস।

দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত গরমের তীব্রতায় রাস্তায় নামা কঠিন হয়ে পড়ে। আরব আমিরাতের কন্ডিশনে ক্রিকেট খেলাটা নিশ্চয় সহজ হবার কথা নয়। টাইগার ম্যানেজমেন্টে বিষয়টি জানা আছে, তাই তো সবার আগে দুবাইয়ে এসেই অনুশীলনে মাঠে নামিয়ে দিয়েছে মাশরাফীদের।

হজ্ব থেকে ফিরে চলে গিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে, দেশে অনুশীলন ক্যাম্পে ছিলেন না সাকিব। দুবাইতে দলের সাথে যোগ দিয়েই অনুশীলনে নেমে পড়েছেন। তিন ঘন্টার সেশনে এক মিনিটও সময় নষ্ট করেননি সাকিব। নেটে ব্যাট করেছেন ঘন্টাখানেকের বেশি সময়।

পরে বল নিয়েও হাত ঘুরিয়েছেন, ফিল্ডিং সেশনেও মনোযোগী টাইগার অলরাউন্ডার। আঙুলের ইনজুরি কাটিয়ে এশিয়া কাপে নামতে পারবেন কিনা সেই শঙ্কা কিছুটা হলেও দূর হয়েছে ফুরফুরে সাকিবকে দেখে।

কন্ডিশনের পাশাপাশি ম্যানেজমেন্টের কপালে ভাঁজ ফেলছে ক্রিকেটারদের ইনজুরি। সাকিবের সঙ্গে শান্ত, তামিমও ভুগছেন আঙুলের সমস্যায়। এশিয়া কাপের আগে সাকিব-তামিমরা কতোটা ফিট হতে পারবেন সেই দুশ্চিন্তা থাকছেই। সাকিব ওসব নিয়ে ভাবছেন না, তার বিশ্বাস শেষ পর্যন্ত একাদশে যারাই খেলুক, সামর্থ্যের সেরাটা দিলে সাফল্য আসবে।

আরব আমিরাতে আগেও খেলে গেছেন সাকিব। এখানকার মাঠ, উইকেট, কন্ডিশন সম্পর্কে জানাশোনা ভালোই আছে তার। নিজের অভিজ্ঞতা ছড়িয়ে দিচ্ছেন দলের মধ্যে। টুর্নামেন্টে সাফল্য পেতে দ্রুত কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেয়াটাকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন সাকিব।

আইসিসি ক্রিকেট একাডেমিতেই ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টানা অনুশীলন করবে দল।