আফগানদের নিয়ে যা বললেন টাইগার সাকিব

আগামীকাল পর্দা উঠতে যাচ্ছে এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ দিয়েই পর্দা উঠবে এবারের আসরের। আর এই আসরকে সামনে রেখে এরই মধ্যে শেষ সময়ের প্রস্তুতি সেরে নিচ্ছে দলগুলো। এবারের আসরটি আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হবে।

এশিয়া কাপে আগামী ২০শে সেপ্টেম্বর আফগানদের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। আর এই ম্যাচটি নিয়েই যেন বেশি ভয় টাইগার ভক্তদের। কেননা এই আফগানদের বিপক্ষেই দেরাদুনে হোয়াইটওয়াশ হতে হয়েছিল বাংলাদেশকে।

যেহেতু আরব আমিরাত পাকিস্তানের হোম ভেন্যু সেহেতু এখানে পাকিস্তান বাড়িতি সুবিধা পাবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। পাকিস্তান ছাড়াও আরব আমিরাতে কন্ডিশনের উপর ভিত্তি করে আফগানিস্তানও এগিয়ে থাকবে বলেই মনে করছেন বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ।

এদিকে, টাইগারদের সহ অধিনায়ক এবং বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান আফগানদের হালকাভাবে নিচ্ছেন না। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে যে তারা কতটা বিপদজনক হতে পারে সেটি খুব ভালোই জানা আছে তাঁর। সাকিব বলছিলেন,

‘আমরা আফগানিস্তানের বিপক্ষে কিছুদিন আগে খেলেছি, যদিও সেটি টি টুয়েন্টিতে। তবে অবশ্যই আমরা তাদের খেলার কৌশল জানি এবং এটাও জানি যে তারা সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বিপদজনক।’

নিজেদের প্রতিভা প্রদর্শনের জন্য একটি আদর্শ টুর্নামেন্ট হিসেবেও এশিয়া কাপকে দেখছেন সাকিব। তাঁর মতে গত তিন বছরে বাংলাদেশ কতটা এগিয়েছে সেটা প্রমাণ করার মোক্ষম সুযোগ এই এশিয়া কাপ। টাইগার অলরাউন্ডারের বক্তব্য,

‘এটি মোটেই সহজ টুর্নামেন্ট হবে না। তবে একই সময়ে এটি আমাদের প্রতিভা প্রদর্শনের এবং গত দুই তিন বছরে আমরা কতদূর এগিয়েছি তা দেখানোর একটি সুযোগ।’

উল্লেখ্য, এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের প্রতিটি ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টায়। বেসরকারি টিভি চ্যানেল ‘গাজী টিভি’ সবগুলো ম্যাচে সরাসরি সম্প্রচার করবে। উপমহাদেশের দর্শকরা ‘স্টার স্পোর্টস’ এর মাধ্যমে ম্যাচগুলো দেখতে পাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ‘উইলো টিভি’ এবং যুক্তরাজ্যে ‘স্কাই স্পোর্টস’ ও আর অস্ট্রেলিয়ার ‘ফক্স স্পোর্টস’ এশিয়া কাপের ম্যাচগুলো সম্প্রচার করবে।

মধ্য প্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার দর্শকেরাও খেলাগুলো সরাসরি দেখতে পাবেন ‘ওএসএন স্পোর্টস ক্রিকেট এইচডি’র মাধ্যমে।

এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় টুর্নামেন্টের খেলাগুলো সরাসরি সম্প্রচার করবে ‘সুপার স্পোর্টস’। জনপ্রিয় এই টিভির অনলাইন সাইটেও খেলাগুলো দেখানো হবে।